রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ রাখতে চুয়াডাঙ্গা বাজার মনিটরিং কমিটির পরিদর্শন : প্রথমবার সতর্ক

 

স্টাফ রিপোর্টার: সাধারণত রমজান এলেই হঠাৎ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পায়। তাছাড়া কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিজেরাই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে থাকেন। আর তাই রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে চুয়াডাঙ্গা বাজার মনিটরিং কমিটি সব সময় তৎপর। গতকাল বুধবার বিকেল ৪টায় বাজার মনিটরিং কমিটি গলির বাজার, ফেরিঘাট রোড ও নিচের বাজারের দোকানগুলো পরিদর্শন করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাজার মনিটরিং কমিটির সভাপতি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, সদস্য সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কেএম মামুন উজ্জামান, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর মুনিবুর রহমান, সহকারী কমিশনার রুহুল আমিন, জেলা মার্কেটিং অফিসার শহিদুল ইসলাম, জেলা ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক শামসুল আরেফিন, জেলা দোকান মালিক সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুল কাদের যগলু, সাধারণ সম্পাদক ইবরুল হাসান জোয়ার্দ্দার, চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহসভাপতি সাহারিন মালিক, পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর একরামুল হক মুক্তা। এছাড়া বাজার মনিটরিং কমিটিকে সহযোগিতা করেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউনুচ আলীসহ সদর থানা পুলিশ।

জেলা মার্কেটিং অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, ভোক্তা বা সাধারণ ক্রেতা যেন ন্যায্যমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে পারেন এটাই বাজার মনিটরিং কমিটির মূল লক্ষ্য। গতকাল বাজার মনিটরিঙে গিয়ে ব্যবসায়ীদের কিছু ক্রটি লক্ষ্য করা গেছে। বিশেষ করে খাবার অনুপযোগী, মেয়াদোত্তীর্ণ মালামাল, বিএসটিআই অনুমোদনবিহীন মালামাল, মূল্য তালিকাসহ ওজন পরিমাপে ব্যবহৃত কেজি বা বাটখারা ঠিকঠাক ছিলো না। তবে প্রথমবারের মতো সকল ব্যবসায়ীদের সতর্ক করা হয়েছে। পরের পরিদর্শনে অবৈধ কোনো কিছু দেখলেই জরিমানা করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *