মোটরসাইকেল ও আলমসাধুচালক নিহত :মহিলাসহ আহত৪

 

জীবননগর-দত্তনগর ও জীবননগর-কালীগঞ্জ সড়কে পৃথক দুর্ঘটনা

 

জীবননগর ব্যুরো: গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জীবননগর-দত্তনগর সড়কের নারিকেলবাগান নামক স্থানে করিমনের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। অপরদিকে বিকেলে কালীগঞ্জ-জীবননগর সড়কের বৈদ্যনাথপুরে বাসের ধাক্কায় উল্টে গিয়ে নিহত হয়েছেন আলমসাধুচালক। পৃথক এ দুর্ঘটনায় নিহত মোটরসাইকেল চালক মনির হোসেনের (৩৫) স্ত্রী লিপি খাতুনসহ (২৬) করিমনের ৩ মহিলাযাত্রী মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতালসূত্রে জানা যায়, ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ঘুগরি পাস্তাপাড়া গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মনির হোসেন তার অসুস্থ স্ত্রী লিপি খাতুনের রক্ত পরীক্ষার জন্য মোটরসাইকেলযোগে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসছিলেন। এসময় জীবননগর-দত্তনগর সড়কের নারিকেলবাগান নামক স্থানে যাত্রীবাহী করিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে মোটরসাইকেলচালক মনির ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ দুর্ঘটনায় দু করিমনযাত্রী একই উপজেলার কেশবপুর গ্রামের আব্দুস সালামের স্ত্রী হাওয়া খাতুন (৫০) ও জীবননগর উপজেলার গঙ্গাদাসপুর গ্রামের আমিনুল ইসলামের স্ত্রী শাহিতুন নেছাসহ (৪৫) নিহত মনির হোসেনের স্ত্রী লিপি খাতুনকে উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অপরদিকে বিকেলে জীবননগর-কালীগঞ্জ সড়কের বৈদ্যনাথপুরে আসবাপত্রবাহী একটি আলমসাধুকে পেছন দিক থেকে ধাক্কা দেয় খুলনা থেকে চুয়াডাঙ্গাগামী মডার্ন পরিবহন। এ দুর্ঘটনায় আলমসাধুচালক ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারের আব্দুল মালেকের ছেলে পলাশ (৩০) মারাত্মকভাবে আহত হন। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এখানে তার অবস্থার কোনো উন্নতি না হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে যশোর হাসপাতালে রেফার করেন। সেখানে নেয়ার পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয় বলে খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও অপর এক দুর্ঘটনায় রুনা (৩০) নামক এ যুবতী আহত হয়ে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *