মেহেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচনের ১৯ দলীয় জোটের ৩ প্রার্থীর ফলাফল বর্জনের ঘোষণা

 

মেহেরপুর অফিস: ভোটকেন্দ্র দখল, ভোটকেন্দ্রে আসতে বাধা ও নেতাকর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ এনে মেহেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচনের ফলাফল বর্জনের ঘোষণা

দেন ১৯ দলীয় জোটের প্রার্থীরা। গতকাল বুধবার বেলা ৩টার দিকে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন জোটের চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. মারুফ আহম্মেদ বিজন।

অ্যাড. মারুফ আহম্মেদ বিজন সংবাদ সম্মেলনে আরো বলেন, কয়েকদিন ধরে নির্বাচনী এলাকার বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার করা হয়। ভোট গ্রহণের শুরুতেই রাজনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কুলবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলে নিয়ে এজেন্টদের বের করে দেয় ক্ষমতাসীন দলের লোকজন। পরে সকাল ১০টার পর থেকে তারা বিভিন্ন কেন্দ্রে জোটের প্রার্থীদের ভোট দিতে বাধা সৃষ্টি করে এবং নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদেরকে আহত করে। এদের মধ্যে ২১/২২ জন মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এতে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। প্রশাসনকে জানালেও ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর এজেন্টের মধ্যে কয়েকজনের জরিমানা ছাড়া আর কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। বেলা ৩টা থেকে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা ১৯ দলীয় জোট প্রার্থীদের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে কেন্দ্র দখলে নেয়। জালভোট প্রদান করে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের পক্ষে। চেয়ারম্যান প্রার্থী মারুফ আহম্মেদ বিজন, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাওলানা মাহবুবুল আলম ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রুমানা আহম্মেদ এ তিনজনই ভোটের ফলাফল বর্জন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিন প্রার্থী ও সাবেক এমপি মাসুদ অরুনসহ বিএনপি নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *