মেহেরপুর দীঘিরপাড়ার স্বামী পরিত্যক্তা সোহাগী হত্যা

 

অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরের দীঘিরপাড়া গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা সোহাগী হত্যায় মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতরাতে নিহতের একমাত্র ছেলে সাইদুল ইসলাম বাদী হয়ে ওই মামলা করেছেন। মামলায় অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। মেহেরপুর সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, রোববার রাতে নিহতের ছেলে সাইদুল ইসলাম থানায় উপস্থিত হয়ে অজ্ঞাত নামা কয়েক জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এদিকে সোহাগীর লাশ দাফন সম্পন্ন হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল রোববার দুপুরে স্বজনদের হাতে লাশ তুলে দেয় পুলিশ। নামাজে জানাজা শেষে বিকেলে মেহেরপুর পৌর কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে দীঘিরপাড়ার পুলিশ লাইন এলাকার মৃত সুরাত আলী মেয়ে সোহাগী ছাগল চরাতে একই গ্রামের মাঠে যায়। এর পরে আর বাড়ি ফিরে যায়নি সোহাগী। দিনভর খোঁজাখুঁজির পরে রাতে একই গ্রামের নিয়ামতের কলাক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার হয়। দিনের এক সময় নজু সোহাগীর বাড়িতে ছাগল দিতে যায়। ওই সময় সাইদুল ইসলাম তার মার কথা জিজ্ঞাসা করতে নজুর কথা-বার্তায় অসংলগ্ন মনে হয়েছিলো। এছাড়া নিয়ামত আলীর দুই ছেলে নজু ও আজিত নিড়ানী হাতে ঘটনাস্থলে ঘোরাফেরা করছিলো বলে কেউ কেউ দেখেছে বলে জানায়। রাতে অস্ত্রের আঘাতে নিহত সোহাগীর লাশ উদ্ধারের পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ামত আলীর দুই ছেলে নজু ও আজিতকে থানায় নেয় পুলিশ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *