মেহেরপুর গাংনীর শিমুলতলায় সশস্ত্র ডাকাতদলের তাণ্ডব : ৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ডাকাতি : বোমা নিক্ষেপ

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনীর শিমুলতলা গ্রামে আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। গতরাত সাড়ে ১২টার দিকে সশস্ত্র ডাকাতদল হানা দিয়ে মোটরসাইকেল, নগদ টাকা ও মালামালসহ ৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ডাকাতি করেছে। দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে স্থান ত্যাগ করেছে ডাকাতদলের সদস্যরা।

ভুক্তভোগীসূত্রে জানা গেছে, ষোলটাকা ইউনিয়নের শিমুলতলা গ্রামের পচা বিশ্বাসের বাড়িতে একদল সশস্ত্র ডাকাত হানা দেয়। বাড়ির লোকজন অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লুটপাট শুরু করে। আব্দুর রাজ্জাকের ব্যবহৃত একটি পালসার মোটরসাইকেল, কয়েকটি দামি মোবাইলসেট, নগদ ১০ হাজার টাকা, ৫ ভরি সোনায় গয়না ও কাপড় চোপড়সহ জিনিসপত্র লুটে নেয়। শ্যালোইঞ্জিনচালিত একটি যানে মালামাল নিয়ে স্থান ত্যাগ করে ডাকাতদলের সদস্যরা। যাওয়ার সময় বাড়ির সামনে দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। ভুক্তভোগীরা আরো জানিয়েছেন, আব্দুর রাজ্জাকের ভগ্নিপতি ঢাকায় বসবাস করেন। গতরাতে বোন ভগ্নিপতি ঢাকা থেকে ফিরে বামন্দী এলাকা থেকে কুমারীডাঙ্গা পুলিশের সহায়তায় আব্দুর রাজ্জাকের বাড়ি পৌঁছায়। এর ১৫/২০ মিনিট পরে ডাকাতদল হানা দেয়।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, ডাকাতরা মোটরসাইকেল চালিয়ে নিয়ে গেছে। ওই সময়ে মিনাপাড়া মোড়ে পুলিশের প্রহরা থাকা সত্বেও কীভাবে তারা নির্বিঘ্নে পালিয়ে গেছে তা নিয়ে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে ডাকাতির খবর পেয়ে পুলিশের ওই দলটি আবারো আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে ফিরে আসে। কুমারীডাঙ্গা পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) সাহাবুল ইসলাম জানিয়েছেন, বাড়ির কাছ থেকে একটি কম্বল উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের সামনে দিয়ে ডাকাতদলের সদস্যরা যায়নি বলে দাবি করেছেন তিনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *