মেহেরপুরে চুরি যাওয়ার ৭ঘণ্টা পর তার নবজাতককে ফিরে পেলেন প্রসূতি মা

 

মেহেরপুর অফিস: প্রসবের পরপরই মেহেরপুরে চুরি যাওয়া নবজাতক কন্যা শিশুটিকে ৭ ঘণ্টা পর ফিরে পেলেন প্রসূতি মা রেহেনা খাতুন (৩৬)। গতকাল শুক্রবার মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ওই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, মেহেরপুর সদর উপজেলার আমদহ গ্রামের আলামীনের স্ত্রী রেহেনা খাতুনের প্রসব বেদনা উঠলে গতকাল শুক্রবার ভোরে স্বজনরা তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। সকাল ৬টার দিকে রেহেনা খাতুন একটি কন্যাসন্তান জন্ম দেন। জন্মের পর পরই তার শিশুটি চুরি হয়ে যায়। প্রসূতি তার সদ্যজাত শিশুটিকে কাছে না পেয়ে ব্যাকুল হয়ে ওঠেন। এক পর্যায়ে চিৎকার চেঁচামেচি করতে করতে বেড ছেড়ে হাসপাতাল চত্বরে যান প্রসূতি রেহেনা খাতুন। ততোক্ষণে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। ঘটনার প্রায় ৭ ঘণ্টা পর বেলা ১টার দিকে হাসপাতালের নার্স রোকসানা শিশুটিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন। নার্স রোকসানা জানান, পরপর ৫টি কন্যাসন্তান জন্ম দেয়ার পর ৬ষ্ঠ বারেও প্রসূতি রেহেনা কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। এতে পিতা আলামীন সন্তুষ্ট হতে না পেরে নবজাতক কন্যা শিশুটিকে তাকে দিয়ে দেন।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. অলোক কুমার দাস বলেন, এব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিছু জানেন না। অন্যদিকে শিশুটিকে ফেরত পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন প্রসূতি রেহেনা খাতুন। তিনি বলেন, শিশুটিকে ফেরত না পেলে তিনি হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে যেতেন না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *