মেহেরপুরে আদালত বাধাগ্রস্ত : পৌর প্যানেল মেয়র রিপন দণ্ডিত

 

 

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরে হেরোইন সেবনের অপরাধে এক মাদকসেবীর একবছর ও দুমাদকসেবীর ছয় মাস করে কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় বাধা দেয়ার অভিযোগে মেহেরপুর পৌর সভার প্যানেল মেয়র ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ মঞ্জুরুল কবির রিপনের নিকট থেকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মেহেরপুর সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফরিদ হোসেন গতকাল বুধবার বিকেলে ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতসূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার দুপুরে শহরের ঘোষপাড়ার সবির চন্দ্রের ছেলে রাজ কুমার (৩৬), কাজি অফিসপাড়ার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে হিরক মিয়া (৩৫) ও মল্লিকপাড়ার মৃত টগরের ছেলে শাহী (৩২) মেহেরপুর প্রাণিসম্পদ অফিস চত্বরে বসে হেরোইন সেবন করছিলো। গোপল সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানা পুলিশ তাদের আটক করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৭(ক) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে শাহীকে এক বছর এবং রাজ কুমার ও হিরককে ছয় মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করেন। ওই সময় সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অপরাধে পৌর কাউন্সিলর সৈয়দ মঞ্জুরুল কবির রিপনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে একদিনের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়। এঘটনার প্রতিবাদে প্যানেল মেয়র ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রিপনের কর্মী-সমর্থকরা উপজেলা ভূমি অফিসের সামনে মেহেরপুর-মুজিবনগর সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় ও বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেআনে। দণ্ডপ্রাপ্তদের মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে।

পৌর কাউন্সিলর সৈয়দ মঞ্জুরুল কবির রিপন জানান, দণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা তার ওয়ার্ডের বাসিন্দা হিসেবে তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে সদর ভূমি অফিস চত্বরে অবস্থান করছিলেন। দিনের একটি ঘটনার জের ধরে প্রতিপক্ষের চক্রান্তে ওই সময় পুলিশ তাকে আটক করে এবং ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ওই অর্থ জরিমানা করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.