মেহেরপুরের হারদা পাটাপোকা খামার ও বিল পাহারাদার নিজাম উদ্দীনকে কুপিয়ে হত্যা

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের সদর উপজেলার পাটাপোকা খামার ও বিল পাহারাদার নিজাম উদ্দীনকে (৪৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাতে খামার থেকে তাকে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করে পার্শ্ববর্তী খালে পাটের জাগের নিচে লাশ ফেলে যায় দুর্বত্তরা। আজ শনিবার সকালে গাংনী ও সদর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে। নিজাম উদ্দীনের বাড়ি গাংনী উপজেলা কষবা গ্রামে।

খামার মালিক কাওছার আহম্মেদ ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, শুক্রবার মধ্যরাতে খামার পাহারা করার সময় কয়েকজন অস্ত্রধারী দুর্বত্ত নিজাম উদ্দীনকে তুলে নিয়ে যায়। খামারের কয়েকজন পাহারাদার ও পুলিশের একটি দল খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান পায়নি। খামার ও বিল পাহারা না করতে দুর্বত্তরা কয়েকদিন আগে থেকেই হুমকি দিয়ে আসছিলো নিজাম উদ্দীনকে। এর জের ধরে তাকে খুন করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রথমিকভাবে ধারনা করছে পুলিশ।Gangni Murder pic copy

তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য খামার ব্যবস্থাপক আলমগীর হোসেনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। আলমগীর হোসেনের সামনে থেকেই নিজাম উদ্দীনকে তুলে নিয়ে যায়। নিহতের স্ত্রী নাছিমা খাতুন জানিয়েছেন, শরীরে পক্স ওঠার কারণে কয়েকদিন ধরে বাড়িতেই ছিলেন নিজাম উদ্দীন। শুক্রবার রাত এগারটার দিকে খামার ব্যবস্থাপক বেশ কয়েকবার তাকে মোবাইলে কল করে জরুরি খামারে আসতে বলেন। পার্শ্ববর্তী গ্রামের কয়েকজন কিছুদিন আগে থেকেই তাকে হুমকি দিয়ে আসছিলো। এতে সে ভীত হলেও সংসারের খরচ জোগানের তাগিদে খামার পাহারার যেতে বাধ্য হয়।

গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাছুদুল আলম জানিয়েছেন, নিজাম উদ্দীন গাংনী থানা পুলিশের তালিকাভুক্ত ১৯ নম্বর সন্ত্রাসী। সে কষবা পুলিশ ক্যাম্পে নিয়মিত হাজিরা দিতো। তার নামে হত্যাসহ তিনটি মামলা রয়েছে। প্রতিপক্ষ চরমপন্থিরা তাকে খুন করেছে কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *