মুন্সিগঞ্জের সোনাতনপুরের ঘরজামাই শফিকুল গ্যাঁড়াকলে

দৈনিক মাথাভাঙ্গা পত্রিকায় ছবি দেখে এলাবাসীর ফোনে পুলিশ পেলো আলমসাধু চোরের পরিচয়

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের সরোজগঞ্জে অভিনব কায়দায় দরিদ্র আলমসাধু চালকের আলমসাধু চুরি করে নিয়ে যায় চোর। কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সিসি টিভি ক্যামেরায় ধারণকৃত চোরের ভিডিও ও ছবি দৈনিক মাথাভাঙ্গা প্রত্রিকায় প্রকাশ করে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে পেপারের ছবি দেখে মুন্সিগঞ্জ এলাকার লোকজন চোর শনাক্ত করে।
জানা গেছে, গত সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা সদরের নতুন ভাণ্ডারদহ গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে স্বপন আলী তার একমাত্র উপার্জনের অবম্বন আলমসাধু কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের পাশে রেখে চায়ের দোকানে চা পান করতে যান। ১০ মিনিট পর ফিরে এসে আলমসাধু না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েন। সংবাদ পেয়ে সরোজগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জের সহযোগিতাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদের সিটি টিভির ভিডিও ফুটেজ দেখে চোর শনাক্ত করেন। গতকাল এই সংক্রান্ত বিষয়ে দৈনিক মাথাভাঙ্গা প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। সকালে পেপার দেখে মুন্সিগঞ্জ এলাকার লোকজন চোরের পরিচয় উন্মোচন করে।
এলাকাবাসী চোরের পরিচয় দিতে গিয়ে বলেন, সে জীবন নগরের পাকা গ্রামের মৃত সাত্তারের ছেলে ও মুন্সিগঞ্জ সোনাতনপুর গ্রামের নুর নবীর ঘর জামাই শফিকুল। সে ইতঃপূর্বে এলাকায় চুরি করে ধরা পড়ে গণধোলাই খেয়েছে বহু বার। গতকাল কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সরোজগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে চোর শফিকুলের বাড়িতে যান এবং আজ বুধবারের মধ্যে আলমসাধু ফেরত না দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *