মুজিবনগর সীমান্তে বাংলাদেশি এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীর ওপর বিএসএফ’র কুকুর লেলিয়ে নির্যাতন

 

মুজিবনগর প্রতিনিধি:সীমান্তে বাংলাদেশি নির্যাতনে অভিনব পন্থা অবলম্বন করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী (বিএসএফ) বাহিনীর সদস্যরা। সায়েম উদ্দীন (২০) নামের এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে মারধর করেই ক্ষান্ত হয়নি। কুকুর লেলিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করেছে ভারতীয় জোয়ানরা। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার সোনাপুর সীমান্তের ওপারে। গতকাল সকালে সীমান্তের ১০৭ নং পিলার এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা। তার শরীরের মারধরের চিহ্ন ছাড়াও কুকুরে কামড়ানোর দাগ রয়েছে বলে জানান মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. হাসান আলী।

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী সায়েম উদ্দীন নিজের নাম উল্লেখ করে তার বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার কালিবাড়ী এলাকায় বলে জানিয়েছেন। রোববার বিকেলে তাকে সোনাপুর সীমান্ত এলাকা থেকে ধরে নিয়ে যান বিএসএফ সদস্যরা। রাতে বিএসএফ সদস্যরা তাকে ধরে বেধড়ক মারপিট করে কুকুর লেলিয়ে দেন। সেখান থেকে দৌঁড়ে পালিয়ে সোনাপুর গ্রামের আনোয়ারা নামের মহিলার বাঁশবাগানো আশ্রয় নেয় সায়েম। সকালে স্থানীয় লোকজন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে সায়েমের দেয়া নাম পরিচয় সঠিক কি-না তা নিশ্চিত হতে পারছেন না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তার স্বজনদেরও সন্ধান মেলেনি। বিকেলে তার শারীরিক অবস্থার অবনত হলে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

এদিকে বিষয়টির প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজিবি। চুয়াডাঙ্গা ৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক মানিরুজ্জমান দৈনিক মাথাভাঙ্গাকে জানান, গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মুজিবনগর সীমান্তের ১০৬ নং মেন পিলার এলাকায় বিএসএফ হৃদয়পুর ক্যাম্প সদস্যদের সাথে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় বিএসএফ সদস্যরা বিজিবিকে জানিয়েছে কাঁটাতারের বেড়া ডিঙিয়ে সায়েম ভারতে প্রবেশ করে। স্থানীয় গ্রামবাসী তাকে মারপিট করেছে। বাংলাদেশের স্থানীয় লোকজনের অভিযোগের বিষয়ে মনিরুজ্জামান আরো বলেন, আমরা শুনেছি ভারতের স্থানীয় লোকজন ও বিএসএফ সায়েমকে মারধর করেছে। কুকুর লেলিয়ে দেয়ার বিষয়টিও জানতে পেরেছে বিজিবি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *