মুজিবনগর থেকে অপহৃত যুবক ঝিনাইদহ থেকে উদ্ধার :দু অপহরক গ্রেফতার

 

 

মুজিবনগর প্রতিনিধি: মেহেরপুর মুজিবনগরের আনন্দবাস গ্রাম থেকে অপহৃত যুবক মামুনুর রশিদকে (২৪) ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। একইসাথে অভিযুক্ত অপহরক চুয়াডাঙ্গার পীরপুরের মৃত গোলাজার রহমানের ছেলে মাজহারুল ইসলাম নীরব (৩৫) ও চুয়াডাঙ্গার ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডপাড়ার সামসুল হক মল্লিকের ছেলে সোহেল আহম্মেদকে (৩৪) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার চারা বটতলা নামক স্থান থেকে স্থানীয়দের সহায়তায় হরিণাকুণ্ডু – থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

মুজিবনগর থানাসূত্রে জানা গেছে, গত ২৬জুন রাতে আনন্দবাস গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে মামুনুর রশিদের বাড়িসহ চারটি বাড়িতে ডাকাতি হয়। ডাকাতদলের সদস্যরা নগদ টাকা ও সোনার গয়না লুটে নেয়। ওই মালামাল ফেরত দেয়ার জন্য মামুনকে আশ্বস্ত করে কৌশলে অপহরণ করে অভিযুক্ত অপহরক মাজহারুল ইসলাম নীরব ও তার সহযোগী সোহেল আহম্মেদ। মামুনুর রশিদ জানান, নীবর দীর্ঘদিন ধরে আনন্দবাস গ্রামে অবস্থানের মধ্যদিয়ে ব্যবসা করেন। তার সাথে ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ডাকাতি হওয়া মালামাল উদ্ধারে নীরবের আশ্বাসে গতকাল সকালে সে নীরবের সাথে বাড়ি থেকে বের হয়। নীরব ও মাজহারুল দুজনে মোটরসাইকেলযোগে প্রথমে চুয়াডাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গায় যায়। কিন্তু কোনো সূরাহা না হওয়ায় নীরব তাকে নিয়ে যায় দর্শনায়। সেখান থেকে নীরবের সহযোগী সোহেল তাদের সাথে যোগ দেয়। মোটরসাইকেলযোগে তারা তিনজন ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার উদ্দেশে রওনা হয়। পথের মধ্যে সোহেল ও নীরবের কথাবার্তায় মামুন বুঝতে পারে কৌশলে তাকে অপহরণ করা হয়েছে। সে মানসিকভাবে ভেঙে পড়লেও তাদের হাত থেকে বাঁচার রাস্তা খুঁজতে থাকে। হরিণাকুণ্ডু উপজেলার চারা বটতলা নামক স্থানে পৌঁছুলে তাদের মোটরসাইকেলের জ্বালানি তেল ফুরিয়ে যায়। এ সময় অপহৃত মামুন চিৎকার করলে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাদের তিনজনকে আটক করে। পরে হরিণাকুণ্ডু থানায় সোপর্দ করে।

মুজিবনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মোল্লা জানান, সন্ধ্যায় মামুনুর রশিদসহ অভিযুক্ত দু অপহরকে থানায় আনা হয়। মামলা দায়েরপূর্বক তাদেরকে আজ আদালতে সোপর্দ করা হবে। এদিকে রাতে মুজিবনগর থানায় অপহৃত ও অভিযুক্ত অপহরকদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন মেহেরপুর সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আব্দুল জলিল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *