মুজিবনগরে রোহিঙ্গা ঠেলে দিলো বিএসএফ

রাখাইন থেকে কাজের সন্ধানে স্বপরিবারে ভারতে গিয়ে আটক

মুজিবনগর প্রতিনিধি: মেহেরপুরের মুজিবনগর সীমান্ত এলাকা থেকে একটি রোহিঙ্গা পরিবারের ৬ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ভোরে তারা নাজিরাকোনা সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে এদেশে প্রবেশ করে। আটকৃতরা হচ্ছে- মিয়ানমারের রাখাইনের ওয়ালিজ শিকদারপাড়ার আব্দুল গণি (৩৫) ও তার স্ত্রী সালেহা খাতুন (৩৩)। ২ ছেলে জাহাঙ্গীর গণি (১০) ও সাইফুল ইসলাম (৩) এবং ২ মেয়ে নুর কলিমা (৬) ও ১০ মাস বয়সী তসলিমা খাতুন। এখন তারা মুজিবনগর থানা পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আব্দুল গণি নামের ওই পরাহিঙ্গা তার স্ত্রী ও চার ছেলে-মেয়ে নিয়ে সীমান্ত দিয়ে এদিন ভোরে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। স্থানীয় লোকজন তাদেরকে মানিকনগর গ্রামের ইছার উদ্দীনের বাড়িতে নিয়ে যায়। আশেপাশের লোকজন তাদেরকে খাবার-দাবার দিয়ে সহায়তা করছেন। তাদের দেখতে ভিড় করেছেন উৎসুক মানুষ।
মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠিয়ে তাদের থানায় নেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তারা আসামি নয়। তারা অসহায়। তাই উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে তাদের রোহিঙ্গা শিবিরে পাঠানো হতে পারে।
রোহিঙ্গা যুবক আব্দুল গণি বলেন, কয়েক মাস আগে কাজের সন্ধানে তিনি স্ব-পরিবারে ভারতে যান। বিএসএফ তাদের আটক করে আটক করে সীমান্তের ওপারে আটকে রাখে এবং গতকাল ভোরে কাঁটাতারের বেড়া পার করে দেয়। এখন তিনি তার পরিবার নিয়ে কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে যেতে আগ্রহী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *