মালদ্বীপে মসজিদের কেয়ারটেকারের চাকরির কথা বলে অন্য চাকরি : বেতনের বদলে মারধর : দেশে ফিরে অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা শঙ্করচন্দ্রের আলাউদ্দীন মালদ্বীপ থেকে ফিরে প্রবাসী সুমন ও সুমনের দেশে থাকা মা বেগমের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলেছে। গত ১ আগস্ট তাকে মালদ্বীপে নেয়া হয়, বেতন দুরাস্ত টাকা চাইলে সুমন মারধর করে বলে অভিযোগ আলাউদ্দীনের।

আলাউদ্দীন বলেছে, কথা ছিলো মালদ্বীপে মসজিদের কেয়ারটেকার চাকরি দেবে। বেতন দেবে মাসে ১৮ হাজার। একই গ্রামের আলা ফকিরের মাধ্যমে সুমনের সাথে এ চুক্তি হয়। ৩ লাখ টাকার বিনিময়ে সুমন মালদ্বীপে নিয়ে মসজিদের কেয়ারটেকারের চাকরির বদলে সিকিউরিটি গার্ডের চাকরির ব্যবস্থা করে। দু মাস পর বেতন চাইতে গেলে সুমন মারধর করে। আমার পা ভেঙে যায়। কোনো রকম প্রাণে বেঁচে সেখানে থাকা বাংলাদেশি দু ভাইয়ের সহযোগিতায় চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছি।

আলাউদ্দীন বলেছে, সুমন ও তার মা বেগম আদম ব্যবসা করছে। আমার সাথে প্রতারণা করেছে। আমি বিচার চাই। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুমনের সাথে অবশ্য যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *