মাথাভাঙ্গা নদীতে বাধ দেয়ায় এক জেলেকে জরিমানা

 

স্টাফ রিপোটার: মাথাভাঙ্গা নদীতে কয়েকশ স্থানে একশ্রেণির অসাধু মাছ শিকারি অবৈধ বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার অব্যাহত রেখেছে। এর ফলে জেলার একমাত্র স্রোতশ্বিনী এ নদীটির একদিকে যেমন নাব্যতা হ্রাস পাচ্ছে তেমনি অপরদিকে তার স্রোতে বাধাগ্রস্ত হয়ে মরা নদীতে পরিণত হওয়ার উপক্রম হয়েছে। এ নদীর দামুড়হুদা উপজেলা অংশের এ সকল অবৈধ বাধ অপসারণে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে অভিযানে নামে উপজেলা প্রশাসন। এ সময় এক জেলেকে আটক করে জরিমানা করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল হালিমের নেতৃত্বে থানা পুলিশ মাথাভাঙ্গা নদীতে অবৈধ বাধ অপসারণের কাজ শুরু করে। এ সময় নদীতে অবৈধভাবে বাঁধ দেয়া মালিকরা পালিয়ে গেলেও রঘুনাথ হালদার (৫৫) নামের এক জেলেকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ বছরের জেল প্রদান করেন। তিনি উপজেলার চণ্ডিপুর গ্রামের গনু হালদারের ছেলে। মাথাভাঙ্গা নদীর জিরাট ও রঘুনাথপুর ঘাটের একাধিক বাধ অপসারণ করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসার আয়ুব আলী, নাজির হামিদুর রহমান প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *