মাছবাজারে বাদানুবাদ : আন্দুলবাড়িয়া মাছ বাজারে ধর্মঘট!

 

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি:জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া পাইকারি মাছ বাজারে পাওনা লেনদেন নিয়ে দুব্যবসায়ীর মধ্যে বাদানুবাদকে কেন্দ্র করে ধর্মঘট চলছে। গতকাল রোববার পাইকারি মাছবাজার বন্ধ থাকায় খুচরা মাছ বাজার ছিলো দিনভর ফাঁকা। মাছ না পেয়ে বাড়ি ফিরতে হয়েছে রোজদারসহ ভোজদারগণকে। বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ মাছ ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়ে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন। এ আহ্বানে সাড়া না দেয়ায় জনমনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রয়া দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, গত শনিবার বিকেলে পাইকারি মাছব্যবসায়ী লক্ষণ হালদারের ম্যানেজার ইব্রাহিম আলীর সাথে খুচরা মাছব্যবসায়ী হাফিজুল ইসলামের পূর্বের বকেয়া পাওনা টাকা নিয়ে বাদানুবাদের এক পর্যায়ে ধস্তাধস্তি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় পর মাছব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ সালিস বৈঠকে সৃষ্ট ঘটনায় উভয়কে সতর্ক করে দিয়ে আপস নিষ্পত্তি করে দেন। পাইকারি মাছব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম সিরাজ বলেছেন, মাছ ব্যবসায়ীদের মধ্যে সৃষ্ট ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাজার কমিটির দায়িত্বশীল দুপ্রতিনিধি মাছ ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য করে অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করেন। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে মাছ ব্যবসায়ীরা রাতেই জরুরি বৈঠক ডেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

এদিকে বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ বলেছেন, মাছ বাজারে দিনভর হই চই, মারামারি, যানজট ও নোংরা পরিবেশ সৃষ্টি করায় শৃঙ্খলা ফেরাতে দুপ্রতিনিধি একটু উত্তেজিত ভাষায় কথা বলায় ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে পাইকারি মাছ ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে সিরাজুল ইসলাম সিরাজ গতকাল রোববার সকালে বাজার কমিটির দফতারে নালিশি অভিযোগ দায়ের করেন। এ সময় বাজার কমিটির সভাপতি মিজ্জা হাকিবুর রহমান লিটন ও সম্পাদক শেখ মহিদুল ইসলাম মধু মাছ ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট প্রত্যাহর করে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমধান দেয়ার আশ্বাস দেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.