মন্ত্রিসভায় মেহেরপুর স্থলবন্দর স্থাপন প্রকল্প অনুমোদন :৫জুন ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

 

মেহেরপুর অফিস: অবশেষে মেহেরপুরের মানুষের প্রাণের দাবি পূরণের দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। মেহেরপুর জেলায় স্থলবন্দর স্থাপনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৭ মে গত বুধবার মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে বিষয়টি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আগামী ৫জুন নৌ-পরিবহনন্ত্রী শাজাহান খান ও বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার পঙ্কজ শরণ মেহেরপুরে স্থলবন্দরের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করবেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টার পৌরসভার ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন এবিষয়টি উপস্থিত সবাইকে অবগত করেন। তিনি আরও বলেন, এঅর্থবছরেই স্থলবন্দর নির্মাণের সব কার্যক্রম শুরু হবে। মেহরপুর পৌরসভাকে এগিয়ে নিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, চলতি বছরের মধ্যেই মুজিবনগর কমপ্লেক্সের মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিকেন্দ্রের অবশিষ্ট নির্মাণকাজ শেষ করা হবে। মুজিবনগরকে একটি আধুনিক পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে। কাজলা নদী খননের মাধ্যমে আমঝুপি নীলকুঠিকে সৌন্দর্যমণ্ডিত করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

মেহেরপুর স্থলবন্দর স্থাপনের জন্য দীর্ঘদিন ধরে মন্ত্রণালয়ের চিঠি চালাচালি চলছে। গত ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবসের অনুষ্ঠানের আগে এবিষয়টি নিয়ে স্বোচ্ছার হয় স্থলবন্দর স্থাপন বাস্তবায়ন আন্দোলন ফোরাম নামের একটি নাগরিক প্লাটফরম। মেহেরপুরে দলমত নির্বিশেষে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের অংশগ্রহণ এক দীর্ঘ মানবপ্রাচীর কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে রাজধানীতেও মানববন্ধন করা হয়। ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান ঘোষণা দিয়েছিলেন,৩ মাসের মধ্যে স্থলবন্দরের দৃশ্যমান কাজ শুরু হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *