ভ্যাপসা গরম : চুয়াডাঙ্গায় এক নারীসহ দুজনের মৃত্যু

সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ব্যাবধান কম : বাতাসে জলীয় বাষ্পের প্রভাব

 

 

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের বিভিন্ন স্থানে অস্থায়ী বৃষ্টিতে তাপমাত্রা হ্রাস পেলেও চুয়াডাঙ্গা যশোর মেহেরপুরে মৃদু তাপপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। ফলে ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে মানুষ। গতকাল চুয়াডাঙ্গার টেংরামারী ও দীননাথপুরের দুজনের মৃত্যু হয়েছে। মাত্রারিক্ত গরমে হিটস্টোক আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন চিকিৎসক।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যশোরে ৩৭ দশমিক ৪ এবং সর্বনিম্ন ঈশ্বরর্দীতে ২২ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। সিলেটে গতকাল ১২৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। চুয়াডাঙ্গায় সর্বোচ্চে ৩৪ দশমিক ৯ ও সর্বনিম্ন ২৭ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ব্যাবধান যেমন কম, তেমনই ভূপরিমণ্ডলের বাতাসে জলীয় বাষ্পের প্রভাব। এ কারণেই ভ্যাপসা অসহনীয় গরম অনুভুত হচ্ছে। দেদারছে ঘামছে শরীর। অসহনায়ী গরমের মধ্যে অসুস্থ হয়ে গতকাল মারা গেছেন চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের টেংরামারি গ্রামের মফিজ উদ্দীনের ছেলে মোশারফ হোসেন। তিনি গতকাল দুপুর ১২টার দিকে মাঠে কচুর জমিতে কাজ করার সময় অসুস্থ হয়েপড়েন। তাকে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। অসুস্থতার বর্ণনা শুনে চিকিৎসক বলেন, হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা গেছেন বলে মনে হচ্ছে। অপরদিকে জেলা সদরের দীননাথপুরের সাইদুর রহমানের স্ত্রী রেশমা খাতুন (৩৫) অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকেও নেয়া হয় সদর হাসপাতালে। চিকিৎসক দেখে মৃত বলে ঘোষণা করেন। রেশমা খাতুনের মৃত্যু গরমের কারণে হয়েছে বলে পারিবারিকভাবে জানানো হয়।

এদিকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ অবস্থান করছে যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। দক্ষিণ- পশ্চিম মৌসুমী বায়ু ইয়াঙ্গুন উপকূল পর্যন্ত বিস্তৃত। রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, সাতক্ষীরা, পটুয়াখালী ও মাইজদী কোর্ট অঞ্চলের উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *