ভারতের মেদেনীপুর ওরশ শরীফ ১৭ ফেব্রুয়ারি

ওরশে যোগ দিতে এবারও থাকছে বিশেষ ট্রেন

দর্শনা অফিস: দর্শনা আন্তর্জাতিক স্টেশন হয়ে বিশেষ ট্রেনটি আগামীকাল রাতে ভারতের গেদে প্রবেশ করবে। মেদেনীপুরের ওরশে যোগ দিতে ভক্ত অনুরাগীরা প্রতি বছর বিশেষ ট্রেনের আয়োজন করে।

ভক্ত অনুসারীরা জানিয়েছেন, বিশেষ নিয়ামতের আশায় হযরত আলী আ. কাদেরী শামসুল কাদেরী হযরত শাহ সৈয়দ রশিদ আলী মোর্শেদ আলী আল কাদেরী আল হাসান আল হুসাইন আল বাগদাদি মেদেনীপুরের ওরশ শুরু হবে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি ৫ ফাল্গুন রোববার রাতে। পবিত্র ওরশ শরিফে যোগদান করতে আঞ্জুমান-ই- কাদেরীয়ার বড় হুজুর পরিচালিত মেদেনীপুর বিশেষ ট্রেনটি আগামীকাল ১৫ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টার দিকে রাজবাড়ী স্টেশন থেকে ছেড়ে দর্শনা আর্ন্তজাতিক স্টেশনে পৌঁছাতে পারে রাত দেড়টার দিকে। আল কাদরীর স্মরণে ১১৩তম ওরশ শরিফে তার ভক্ত আশেকানরা ভারতের মেদেনী পুরের উদ্দেশে ছেড়ে আসা বিশেষ ট্রেনটি কয়টি বগিতে কতোজন যাত্রী থাকছে তার হিসেব পাওয়া যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে দু থেকে আড়াই হাজার যাত্রী থাকতে পারে। ট্রেনটি দর্শনা আর্ন্তজাতিক স্টেশনে পৌঁছানোর পর থেকেই ইমিগ্রেশন-চেকপোস্ট ও কাস্টমসের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করে মেদেনীপুরের উদ্দেশে সোমবারই ত্যাগ করবে দর্শনা আন্তর্জাতিক স্টেশন।

এদিকে মেদেনীপুরের ওরশে যোগ দিতে গত তিনদিন থেকে দর্শনা জয়নগরসহ বিভিন্ন সীমান্ত পথে পার্সপোর্টধারী ভক্ত-আশেকানরা যাওয়া শুরু করেছে। গত বুধ ও বৃহস্পতিবার দর্শনা সীমান্ত পথে ওরশে যাওয়া যাত্রীর সংখ্যা ৭৯৩ জন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দর্শনা জয়নগর সীমান্তে পথে বিরামহীনভাবে ভারতের মেদেনীপুরে যাচ্ছে পার্সপোর্টধারী ভক্তরা। অতিরিক্ত ভীড় সামাল দিতে রিতিমত হিমশিম খাচ্ছেন কাস্টমস, ইমিগ্রেশন ও বিজিবি চেকপোষ্টের সদস্যরা।

Leave a comment

Your email address will not be published.