বড় ভাইয়ের ভাত নিয়ে বাগানে গিয়ে গাছের গুঁড়ি চাপায় লাশ হলো ছোট ভাই

চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার দলকা লক্ষ্মীপুর আওলাদপাড়ার বাগানে গাছ কাটতে গিয়ে বিপত্তি : গোপালপুরে শোক 

 

স্টাফ রিপোর্টার: গাছের গুঁড়ি চাপা পড়ে দামুড়হুদা গোপালপুর দক্ষিণপাড়ার সিদ্দিকুর রহমান (৩৭) নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার বেলা ২টার দিকে দলকা লক্ষ্মীপুরের আওলাদপাড়ার বাগানে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে। নিহত সিদ্দিক তার বড় ভাই কাঠকাটা শ্রমিক আরব আলীর জন্য খাবার নিয়ে কাটা গাছের নিকট গেলে তার মাথার ওপর কড়ুইগাছের বিশাল গুঁড়ি পড়ে। মাথা চেপটে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার গোপালপুর দক্ষিণপাড়ার মৃত সাইজুল ইসলামের বড় ছেলে আরব আলী গাছকাঠা শ্রমিক। তিনি গতকাল শনিবার গোপালপুরের কাঠব্যাপারী মাতুয়ার হোসেন মাতুর কেনা গাছ কাটতে দলকা লক্ষ্মীপুরের আশরাফুল ডাক্তারের বাগানে যান। আরব আলীসহ কয়েকজন শ্রমিক কড়ুইগাছ কাটছিলেন। ভাই আরব আলীর জন্য সিদ্দিকুর রহমান ভাত নিয়ে ওই বাগানে যান। ভাত নিয়ে বাগানে দাঁড়াতেই তার মাথার ওপর পড়ে কড়ুইগাছের গুঁড়ি। ঘটনাস্থলেই নিহত হন সিদ্দিকুর রহমান। তার লাশ বাড়িতে নেয়া হলে স্ত্রী-সন্তানসহ নিকটজনদের আহাজারিতে হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে এক শ্রমিক জানান, আশরাফ ডাক্তারের বাগানের বেশ কয়েকটি গাছ গোপালপুরের মাতু কিনেছেন। গতকাল শনিবার সকাল থেকে গাছ কাটা শুরু হয়। কড়ুইগাছটি কাটা হলে তা পড়ে পাশের একটি গাছের ওপর। সেই গাছটি কাটতেই গুঁড়িটি আছড়ে পড়ে। তার নিচে চাপা পড়ে শ্রমিক আরব আলীর ভাই সিদ্দিকুর।

সিদ্দিকুর তিন সন্তানের জনক। বড় ছেলে টুটুলের বয়স ৯ বছর, মেয়ে মরিয়ামের বয়স ৪ বছর। অপর সন্তান ফারহাদের বয়স দু মাস। তিন নাবালক সন্তান নিয়ে সিদ্দিকের স্ত্রী খালেদা আক্তার দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তিনি উন্মাদ প্রায়। কে দেখবে তার সন্তানদের? কাঠব্যাপারী মাতুর তরফে গতকাল শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তেমন আর্থিক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি মেলেনি। তবে পরে ব্যবস্থা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *