বোমা ফাটিয়ে স্কুলছাত্র অপহরণের দুঘণ্টার মাথায় উদ্ধার

ামুড়হুদার জগন্নাথপুরে একদল অস্ত্রধারীর হানা : পুলিশ-জনতার তড়িত পদক্ষেপ

দামুড়হুদা/কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার জগন্নাথপুরে সশস্ত্র হামলা চালিয়ে দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে স্কুলছাত্র অপহরণ করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় জনতার তড়িত পদক্ষেপে অপহরনের দু ঘণ্টার মাথায় অপহৃত স্কুলছাত্র আলী রাজকে (১৪) উদ্ধার করে বাড়ি ফেরানো সম্ভব হয়েছে। গতরাত সোয়া ১০টার দিকে এ অপহরণের ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, দামুড়হুদার নাটুদহ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর মসজিদপাড়ার শুকুর আলী পিকআপ’র স্টাটার। স্থানীয়রা এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, বিদ্যুত না থাকার কারণে রাত আনুমানিক সোয়া ১০টার দিকে নিজেদের বাড়ির উঠোনে বসে ছিলো শুকুর আলীর ছেলে আলী রাজ। এ সময় একদল অস্ত্রধারী হানা দেয় শুকুর আলীর বাড়ি। পর পর দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। অস্ত্রের মুখে আলী রাজকে অপহরণ করা হয়। খবর পেয়ে নাটুদহ ফাঁড়ি পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। গ্রামের সাধারণ মানুষও অপহরকচক্রের কবল থেকে আলী রাজকে উদ্ধারে উঠে পড়ে লাগে। দামুড়হুদা মডেল থানার থানার ওসি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পাশের মাঠ ঘিরে শুরু করেন তল্লাশি। অপহরণের দু ঘণ্টার মাথায় মাঠ থেকে উদ্ধার করা হয় অপহৃতকে। তবে গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অপহরকচক্রের তেমন কাউকে ধরতে পারেনি পুলিশ। আলী রাজাকে অপহরকচক্রের সদস্যরা মারপিট করে গ্রামের অদূরবর্তী গালার মাঠে ফেলে রাখে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়।
দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবু জিহাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, পূর্ব শত্রতার জের ধরে তাকে অপহরণ করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার প্রকৃত কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *