বুজরুকগড়গড়ি কবরস্থানের গাছ বিক্রি : চাঁদার দাবিতে হুমকি

ধামকি হামলার অভিযোগ তুলে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় নালিশ

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা বুজুরুক গড়গড়ির হামিদুলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ তুলে সদর থানায় নালিশ করা হয়েছে। বুজরুক গড়গড়ি বায়তুল মওলা বকরস্থান পরিচালনা পরিষদের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বরত মো. মুকুল হোসেন জোয়ার্দ্দার বাদী হয়ে গতকাল এ মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্ত হামিদুল চুয়াডাঙ্গা বুজরুক গড়গড়ির শহিদুল ইলামের ছেলে। এজাহারে বলা হয়েছে, কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক কবরস্থানের ৪৬টি গাছ বিক্রয় বিজ্ঞপ্তি পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়। নিয়মতান্ত্রিকভাবে সর্বোচ্চ দর ওঠে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। কমিটি সিদ্ধান্ত মোতাবেক গাছ বিক্রি করা হয়। এরই মাঝে গত পরশু ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় স্কুলমোড়ে রওশনের চায়ের দোকানের নিকট মামলার বাদীসহ কমিটির নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে অকথ্য ভাষায় গালিগাজ শুরু করে। এক পর্যায়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা না দিলে খুনের হুমকি দিলে উত্তেজনা দানা বাধে। বাদীর ওপর হামলা করে। সাক্ষীরা ছুটে এলে অভিযুক্ত পালিয়ে যায় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

স্থানীয়রা বলেছেন, হামিদুল এলাকায় ডিশব্যবসা করেন। সে বেশ কিছুদিন ধরেই নান অভিযোগে অভিযুক্ত। তার চাঁদা দাবির বিষয় নিয়ে এলাকায় গতকাল গণমান্য ব্যক্তি আলোচনায় বসেন। আলোচনা সভায় হামিদুলের পিতাও উপস্থিত থেকে তার সন্তানকে সুধরে নেয়ার নানা কথা বলেন। এরপরও কাজ হয়নি। আবারও হুমকি ধামকি শুরু  হলে কমিটির সিদ্ধান্তে গতকাল শনিবার চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় এজাহার পেশ করা হয়। থানার অফিসার ইনচার্জ বলেছেন, অভিযোগটি হাতে পাওয়া গেছে। প্রাথমিক তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *