বিবাদীর আইনজীবী কর্তৃক মামলার বাদীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

 

স্টাফ রিপোর্টার: বিবাদীর আইনজীবী মামলার বাদীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি জানাজানি হলে বিরূপ সমালোচনা শুরু হয়।

অভিযোগকারী কুষ্টিয়া হালসার শিউলী আক্তার লাকি বলেছেন, আমার দায়ের করা মামলার ধার্য দিন ছিলো গতকাল রোববার। এদিনে আদালতে হাজিরা দিতে আসি। মামলার আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাড. শফি উদ্দিন আমাকে ও আমার সাথে থাকা আমার বোন লতাকে তার চেম্বারে ডাকেন। আমরা সরল বিশ্বাসে গেলে জোরপূর্বক তালাক নামায় স্বাক্ষর করিয়ে নিতে চান। আমি তা না করলে আমাকে চড়থাপ্পড় মারেন। ধাক্কা দেন। অপমানজনক কথা বলেন। একজন আইনজীবী হয়েও তিনি মামলার বাদীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার দৃশ্য স্থানীয়রা দেখেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত আইনজীবীর সাথে মোবাইলফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, লাঞ্ছিত নয়, চিল্লাচিল্লি কারার কারণে ধমক দেয়া হয়, হালকা ধাক্কা দিয়ে চেম্বার থেকে বের করে দেয়া হয়।

মামলার বাদী শিউলী আক্তার লাকি বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা বালিয়াকান্দির মনিরুজ্জামান নয়নের সাথে আনুমানিক এক বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর যৌতুক দেয়া হলেও পরে আবারও যৌতুক চায় সে। যৌতুকের দাবিতে গত ২৪ মার্চ রাতে নির্যাতন করে স্বামীর ঘরে আটকে রাখে স্বামী। খবর পেয়ে পুলিশ উদ্ধার করে। হাসপাতালে ভর্তি করে। এ বিষয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এ মামলাটি বিচারাধীন। গতকাল রোববার মামলার ধার্যদিনে আদালতে হাজির হয়। দুপুরে আসামি পক্ষের আইনজীবী তার চেম্বারে ডাকেন। সেখানে গেলে তালাকনামায় জোর করে স্বাক্ষর করিয়ে নিতে গেলে বাধা দিই। তখনই চড়থাপ্পড় মারেন। গায়ের ওড়না ধরেও লাঞ্ছিত করেন তিনি।

Leave a comment

Your email address will not be published.