বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে বেধড়ক পিটুনি

 

দামুড়হুদার বিষ্ণপুর মাঠের দু বিঘা জমির বেগুনক্ষেত কাটার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: দামুড়হুদা বিষ্ণপুর কাচারিপাড়ার শফিকে তার বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়েছে। গতরাত সাড়ে ৮টার দিকে তাকে গ্রামেরই টুলুর বাড়িতে নিয়ে লাঠি ও বাটাম দিয়ে পেটানো হয়। অমানবিক পিটুনির শিকার শফিকে গতরাতেই চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে ক্ষেত নষ্ট করার অভিযোগ তুলে দায়ের করা মামলায় পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রামেরই আবু বক্করের ছেলে আব্দুস সালামের দু বিঘা জমির বেগুন ক্ষেত কেটে দেয়ার অভিযোগ তুলে শফিকে তার বাড়ি থেকে ধরে বেধড়ক পেটানো হয়েছে। এ তথ্য দিয়ে শফির শয্যাপাশে থাকা লোকজন বলেছেন, গতপরশু রাতে কে বা কারা গ্রামেরই আব্দুস সালামের দু বিঘা জমির বেগুনক্ষেত কেটে দেয়। গতকাল সন্দেহমূলকভাবে গ্রামের রহিম নামের একজনকে ধরে মারধর করা হয়। এরপর সালিসের কথা বলে মিনাল হোসেনের ছেলে শফিকে (৪০) ধরে নিয়ে গ্রামেরই টুলুর বাড়িতে আটকে অমানাবকভাবে মারধর করা হয়। লাঠিসোঁটা দিয়ে এমনভাবে মারধর করা হয়েছে যে শারা শরীর ফুলে গেছে। মাথায়ও রক্তাক্ত জখম হয়েছে।

শফি প্রশ্ন তুলে বলেছে, আমি কেন ওদের বেগুনক্ষেত কাটতে যাবো? দামুড়হুদা থেকে সন্ধ্যার পর বাড়ি ফিরি। গোসুল করছিলাম। এ সময় ওরা ভিজে কাপড়ে ধরে নিয়ে যেভাবে মেরেছে তা ভাষায় বর্ণনা করা যাবে না। আমি বিচার চাই। বিচার কি পাবো? অপরদিকে বেগুন ও ঝালক্ষেত কেটে দেয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় মিনালের ছেলে রহিম ও আলমের ছেলে শফিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *