বাড়িতে মিথ্যা সংবাদ দিয়ে টাকা হাতানোর চেষ্টা

 

স্টাফ রিপোর্টার: ‘চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে স্ট্রোক করেছেন ভগিরথপুর ইউপি মেম্বার মাসুদ রানা’ এমন মিথ্যা সংবাদ দিয়ে তার পরিবারের কাছ থেকে ৯০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেছে এক প্রতারক চক্র। গতকাল ইফতারের আগমুহূর্তে (০১৭০০৯৫০৩১১) নম্বর থেকে ফোন আসে ইউপি মেম্বার মাসুদ রানার স্ত্রীর কাছে। রিসিভ করতেই বলা হয়, ‘খুলনা আবু নাসির হাসপাতাল থেকে আমি পুলিশের ডা. শহিদুল ইসলাম বলছি, মেম্বার মাসুদ জেল খানার ভেতরে স্ট্রোক করেছিলেন। বর্তমানে তিনি খুলনা আবু-নাসির হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এই মুহূর্তে খুব টাকার প্রয়োজন। মেম্বারের জন্য অক্সিজেন ও ওষুধ কেনা লাগবে। তাছাড়াও হাসপাতালের ভর্তি বাবদ ৩০ হাজার টাকা প্রয়োজন এখনই।’

তিনি এ কথাও বলেন যে, সরকারিভাবে আসামিদের চিকিৎসা বারাদ্দ যে খরচ পাওয়া যায়, তাৎক্ষণিক সে টাকা পাওয়া সম্ভব নয়। তাই বর্তমানে ৩০ হাজার টাকার প্রয়োজন খুব। আর কাল সকালে আরও ৬০ হাজার টাকার মতো খরচ হতে পারে। তা-না হলে মেম্বারকে বাঁচানো সম্ভব নয়। বিকাশে টাকা পাঠিয়ে আপনারা খুলনায় চলে আসেন।

এসব কথা শুনে সত্যতা যাচাইয়ের জন্য মাসুদ রানার পরিবার চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল ও জেলখানায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারে এমন কোনো ঘটনা জেলখানায় ঘটেনি। ঘণ্টাখানেক পরে একই নম্বরে ফোন দিলে রিসিভ করে জিজ্ঞাসা করেন টাকা পাঠিয়েছেন? এ পাশ থেকে বলা হয় পুলিশের কাছে টাকা হাসপাতালে আয়। এ কথা বলার সাথে সাথে অপর প্রান্ত থেকে নম্বরটি বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে বোঝা যায় যে এটা একটি প্রতারক চক্রের কারবার। এদিকে মেম্বার স্ট্রোক করেছেন এমন খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা ছুটে আসতে থাকেন মেম্বারের বাড়িতে। উল্লেখ্য, ৩ দিন আগে ফেনসিডিল সেবনের অভিযোগে দামুড়হুদার চারুলিয়া থেকে আটক করা হয় মেম্বার মাসুদ রানাকে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *