বর্ণাঢ্য আয়োজনে চুয়াডাঙ্গায় বিটিভির ৫০ বছর পূর্তি পালিত সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে বিটিভিও বর্তমানে অনুষ্ঠানের মান বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা রাখছে

স্টাফ রিপোর্টার: নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গায় বর্ণাঢ্য ৱ্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মল্লিক সাঈদ মাহবুব প্রমুখ। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মল্লিক সাঈদ মাহবুব। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কবিরুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আনজুমান আরা ও চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সিদ্দিকুর রহমান।

আলোচনাসভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি রাশেদিন আমীন (রাজন রাশেদ)। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে অনুষ্ঠানের সকল পর্যায়ে আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানের সভাপতি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মল্লিক সাঈদ মাহবুব বলেন, বাংলাদেশ টেলিভিশন গণমানুষের টেলিভিশন। দেশের প্রতিটি কোণের দর্শকের কাছে পৌঁছুনোর কারণে এখন পর্যন্ত এ টিভির দর্শকসংখ্যা অনেক বেশি। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে বিটিভিও বর্তমানে অনুষ্ঠানের মান বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। উপস্থিত অন্যরাও বিটিভির ভূয়ষী প্রশংসা করেন। আগামীতে বিটিভি দেশের মানুষের কথা বলবে এবং দেশ গঠনে বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে সকলে মত প্রকাশ করেন।

পরে বিটিভির চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধি রাশেদিন আমীনকে সাথে নিয়ে অতিথিবৃন্দ কেক কেটে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করেন। সবশেষে চুয়াডাঙ্গা শিল্পকলা একাডেমীর আয়োজনে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। এতে চুয়াডাঙ্গা কালেক্টরেটের সহকারী কমিশনার নাফিজ সুলতানা সঙ্গীত পরিবেশন করে উপস্থিত সকলকে মুগ্ধ করেন। এছাড়া সঙ্গীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট বাউল শিল্পী একুশে পদকপ্রাপ্ত খোদা বকস শাহর সুযোগ্য পুত্র আব্দুল লতিফ শাহ, চুয়াডাঙ্গা শিল্পকলা একাডেমীর নিয়মিত শিল্পী আব্দুস সালাম তারা, শামীমা খাতুন, শান্ত ও রিপা। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন এনডিসি মোকলেছুর রহমান।

ঝিনাইদহ অফিস জানিয়েছে, বিটিভির ৫০ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ঝিনাইদহে শোভাযাত্রা, কেককাটা ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। সকাল ১০টার দিকে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী. স্থানীয় সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, আইনজীবী, ক্যাবল অপারেটরসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ এ শোভাযাত্রায় অংশ নেন। শোভাযাত্রা শেষে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব সভাপতি এম. সাইফুল মাবুদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম। বিটিভির ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি পিন্টু লাল দত্তের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহের সহকারী পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, বিটিভির ঝিনাইদহ উপকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত প্রধান মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, সকাল দশটার দিকে জেলা শিল্পকলা একাডেমী চত্বর থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়ে জেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা পরিষদ প্রশাসকের কার্যালয়ে কেককাটা হয়। বিটিভি মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি আলামিন হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাড. মিয়াজান আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) হেমায়েত হোসেন। বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর রিপোর্টার্স ইউনিটি সভাপতি রফিক-উল আলম ও বিটিভি’র সঙ্গীত শিল্পী আশরাফ মাহমুদসহ সাংবাদিকবৃন্দ।

Leave a comment

Your email address will not be published.