প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর শুনে প্রেমিকেরও একই পথ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর শুনে নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি প্রেমিক মিনহাজ চৌধুরী (২৬)। সহ্য করতে পারেননি প্রেমিকার এভাবে চলে যাওয়া। তাই তিনিও ঘরের দরজা বন্ধ করে ফ্যানের সাথে গলায় গামছা পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন। রাজধানীর ভাটারা এলাকায় একটি ছাত্রাবাসে থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মিনহাজ। গতকাল বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রাবাসেই তিনি আত্মহত্যা করেন। ভাটারা থানা পুলিশ জানায়, মিনহাজ চৌধুরী ইউআইটিএস ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী। ভাটারার খিলবাড়ির টেকের ১০৭৯ নম্বর বাসায় থাকতেন। সেখানকার ছয়তলা ছাত্রাবাস করে কয়েকজন থাকতেন। তিন তলায় তারই কয়েকজন সহপাঠী থাকতেন। সহপাঠী জহিরুল ইসলাম রাজু জানান, রাজশাহীর একটি ডেন্টাল কলেজের ছাত্রী ফাহমিদার সাথে মিনহাজের প্রেম ছিলো। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে মিনহাজ আরেক সহপাঠী মিমকে মোবাইলফোনে বলেন, ফাহমিদা আত্মহত্যা করেছে। এ কথা বলেই মিনহাজ মোবাইলফোনটি বন্ধ করে দেন। কিছুক্ষণ পর সহপাঠী জহিরুল ও মিম ৬ তলায় মিনহাজের ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পান। তাকে ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে বাড়ির মালিককে বিষয়টি জানায় তারা। তখন বিকল্প চাবি দিয়ে দরজা খুলে দেখে ফ্যানের সাথে ঝুলছে মিনহাজ। পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালমর্গে পাঠায়। মিনহাজের পিতার নাম মিজানুর রহমান। গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জে। তিনি থাকেন রাজশাহীতে। ফাহমিদার বাড়িও চাঁপাইনবাবগঞ্জে বলে জানা গেছে। ফাহমিদা রাজশাহীতে মায়ের সাথে থাকতো। ওই বাসায় বৃহস্পতিবার সে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.