প্রাইভেটকার ও গাঁজাসহ দুজন আটক : ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

 

দর্শনা অফিস: চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ডের একটি বিশেষ দল মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়েছে দামুড়হুদার রুদ্রনগর-লোকনাথপুর সড়কের গোবিন্দপুর মোড় নামকস্থানে। বিজিবি সদস্যরা আটক করেছে রাজিবুল ও নস্কার নামের অভিযুক্ত ২ মাদককারবারিকে। উদ্ধার করেছে একটি প্রাইভেটকার ও ১ কেজি গাঁজা। মামলা দায়ের করেছে ৩ জনের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত মাদককারবারি নাস্তিপুরের মিলনকে খুঁজছে বিজিবি। চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ডের উপপরিচালক মেজর আব্দুল্লাহ আলম মঈনের নির্দেশে নায়েক ইসমাইল হোসেন ও রাসেল সিকদার সঙ্গীয় সদস্যদের নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মাদকবিরোধী অভিযান চালান, দামুড়হুদার হাউলী ইউনিয়নের রুদ্রনগর-লোকনাথপুর সড়কের গোবিন্দপুর মোড় নামকস্থানে। বিজিবির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ঘটনাস্থলে ব্লু রংয়ের একটি প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-গ-২৭-৫০৪৮) গতিরোধ করা হলে দর্শনা বাসস্ট্যান্ডপাড়ার আহম্মদ আলীর ছেলে চালক রাজিবুল ইসলাম নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চ্যালেঞ্জ করে বিজিবির সাথে। এক পর্যায়ে প্রাইভেটকার তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে ১ কেজি গাঁজা ও ভারতীয় রুপি। এ ঘটনায় রাজিবুলসহ আটক করা হয়েছে উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের নাস্তিপুরের আবু বক্কর বিশ্বাসের ছেলে নস্কর আলীকে। রাজিবুল নিজেকে অনলাইন পত্রিকার বাংলাদেশ টুডের সাংবাদিক বলে দাবি করেছে। এদিকে নস্কর নিজেকে নাস্তিপুরের সিরাজুল ইসলাম ওরফে ভরুলের ছেলে মিলনের কর্মচারী বলে দাবি করে বলেছে, সে ৫শ টাকায় হাজিরায় মিলনের গাঁজা, ফেনসিডিল ও ইয়াবা বহনের কাজ করে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান মেজর আব্দুল্লাহ আল মঈন। এ ঘটনায় নায়েক রাসেল সিকদার বাদী হয়ে গতকালই দামুড়হুদা থানায় মিলন, রাজিবুল ও নস্করের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। নায়েক রাসেল সিকদার বলেছেন, মিলনকে আটকের প্রক্রিয়া শুরু চলছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *