প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঝিনাইদহে আসছেন আজ

0
43

স্টাফ রিপোর্টার: আজ মঙ্গলবার ঝিনাইদহ সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সফরে ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করবেন তিনি। বিকেলে ঝিনাইদহ সরকারি বালক বিদ্যালয় মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন শেখ হাসিনা। এদিকে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে দলের নেতাকর্মীদের মাঝে আনন্দ-উচ্ছ্বাসের শেষ নেই। প্রিয় নেত্রীকে বরণ করতে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। তবে জেলায় গ্যাসলাইন সঞ্চালন ও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হচ্ছে না।

সর্বশেষ ২০০৮ সালে নির্বাচনী সফরে ঝিনাইদহ শহরের ওয়াজির আলী হাইস্কুল মাঠে এক জনসভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এ প্রথম ঝিনাইদহ সফর করবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ। পুরো ঝিনাইদহ শহরকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত ও শুভেচ্ছা জানাতে রাস্তার মোড়ে মোড়ে তৈরি করা হয়েছে তোরণ। সেইসাথে শহরজুড়ে টাঙানো হয়েছে ব্যানার ও ফেস্টুন। প্রধানমন্ত্রীর আগমনে উচ্ছ্বসিত স্থানীয় নেতাকর্মীরাও। শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত দলের নেতাকর্মীরা উজ্জ্বীবিত প্রিয় নেত্রীকে বরণ করতে বেশ আগে থেকেই প্রস্তুত তারা। এ সফরকে ঘিরে বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরে ব্যাপক প্রচারণা চলছে। আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনগুলো শহরে প্রতিদিন মিছিল, সমাবেশ ও মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাসহ নানা আয়োজন করছে।

আজ বেলা ২টায় হেলিকপ্টারযোগে প্রধানমন্ত্রী ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজমাঠে অবতরণ করবেন। সোয়া ২টায় ঝিনাইদহ শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে গোলচত্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষ্কর্য ‘প্রেরণা ৭১’র উদ্বোধন করবেন তিনি। বিকেল পৌনে ৩টায় ঝিনাইদহ সরকারি বালক বিদ্যালয় ময়দানে জনসভাস্থল থেকে ঝিনাইদহ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন, ঝিনাইদহ সরকারি ভেটেরিনারি কলেজ, ঝিনাইদহ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স, কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি, মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, ওআরএস স্যালাইন ফ্যাক্টরি, শিশু একাডেমী কমপ্লেক্স, পোস্ট অফিস ভবন, সরকারি কেসি কলেজের চারতলা ভবন ও ঝিনাইদহ পৌরসভার সম্প্রসারিত ভবনের উদ্বোধন করবেন। এছাড়া তিনি ঝিনাইদহ সরকারি টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজের নতুন একাডেমিক ভবন, ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা-মুজিবনগর সড়ক সম্প্রসারণ এবং ঝিনাইদহ ১শ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল ২৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। বিকেল ৩টায় ঝিনাইদহ সরকারি বালক বিদ্যালয় মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন শেখ হাসিনা। সেখানে নির্মাণ করা হয়েছে জনসভামঞ্চ।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আজিজুর রহমান বলেন, ৩ লক্ষাধিক মানুষের সমাগমে জনসভাস্থল জনসমূদ্রে পরিণত হবে। তারা আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শপথ নেবেন। নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঝিনাইদহ সফর দলের জন্য বড় ভূমিকা রাখবে। তার সফরকে সফল করতে রাত-দিন কাজ করছেন সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা। প্রধানমন্ত্রীর সফরের মধ্যদিয়ে ঝিনাইদহবাসীর অনেক চাওয়া-পাওয়া পূরণ হবে বলে মনে করেন তিনি।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আব্দুল হাই এমপি বলেন, দীর্ঘদিন পর প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে ঝিনাইদহবাসী প্রস্তুত। জেলার ৬৭টি ইউনিয়নে নেতা-কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ বিরাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর জনসভা ঝিনাইদহের ইতিহাসে সব থেকে বড় জনসভা হবে।

জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফর কর্মসূচি সফল করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তার নিরাপত্তার জন্য এসএসএফ’র সদস্যদের তদারকিতে কয়েক স্তরে জেলাজুড়ে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

এদিকে সরকারের শেষ সময়ে উন্নয়ন বঞ্চিত ঝিনাইদহবাসীর জন্য কী সুখবর দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাই শোনার জন্য অপেক্ষা করছেন দলীয় নেতাকর্মীসহ এ অঞ্চলের মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here