প্রথম স্ত্রী বেহলা বেগমের মৃতদেহ যেখানে পাওয়া যায় সেখানেই ছিলো ইজাল উদ্দীনের মৃতদেহ? চাঞ্চল্য

ইবির বলরামপুরে কুমার নদ থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার : রহস্য উন্মোচনে পুলিশি তদন্ত
জামজামি প্রতিনিধি: দু বছর আগে কুমার নদের ঠিক স্থান থেকে প্রথম স্ত্রী বেহলা বেগমের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়, দু বছর পর ঠিক সেই স্থান থেকেই স্বামী ইজাল উদ্দীনের (৬৫) লাশ উদ্ধার করেছে গ্রামবাসী। গতকাল শনিবার সকাল ১১টার দিকে কুমার নদের পানির নিচ থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পানিতে ডুবে মারা গেলে যেভাবে পেট ফুলে যায় সে রকম না দেখে স্থানীয়দের মধ্যে সন্দেহ দানা বাধে। খবর পেয়ে কুষ্টিয়ার ইবি থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার কেদারনগরের মেয়ে বেহলা বেগমের সাথে বিয়ে করে কুষ্টিয়া ইবির বলরামপুর গ্রামের মৃত মানিক ম-লের ছেলে ইজাল উদ্দীন। সন্তান সংসার নিয়ে ভালোই চলছিলো এদের দাম্পত্য। গত বছর দু আগে স্ত্রী বেহলা বেগমের মৃতদেহ বলরামপুর গ্রামের অদূরবর্তী কুমার নদ থেকে উদ্ধার করা হয়। এ মৃত্যু নিয়ে তখন প্রশ্ন উঠলেও তেমন কেউ কোনো উচ্চবাচ্চ্য করেনি। তবে গতকাল শনিবার ভোর থেকে দ্বিতীয় স্ত্রী রাজিয়া খাতুন তার স্বামীকে খুঁজে পাচ্ছে না বলে জানানোর পর যখন সেই কুমার নদ থেকেই ইজালের লাশ উদ্ধার হয় তখন সেই পুরোনো প্রশ্ন নতুন করে দানা বাধে। গতকাল এ নিয়ে পুরো এলাকায় নানামুখি গুঞ্জন ছিলো।
দ্বিতীয় স্ত্রী রাজিয়া খাতুন বলেছেন, স্বামী ইজাল উদ্দীন রাতে কুমার নদীতে জালপাতে। ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে জাল তুলতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। বাড়ি না ফিরলে প্রতিবেশীদের জানাই। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে বেলা ১১টার দিকে কুমার নদ থেকে উদ্ধার করা হয় লাশ। পানিতে ডুবে মারা গেলে যেমন আলামত থাকে তেমন আলামত না পেয়েই মূলত গ্রামের সাধারণ মানুষ পুলিশে খবর দেয়। ইবি থানার এসআই আনছারুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানতে ময়নাতদন্তের সিদ্ধান্ত নেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *