প্রজনন মরসুমে ইলিশ শিকারে ১১ দিনের নিষেধাজ্ঞা

স্টাফ রিপোর্টার: ইলিশ প্রজনন মরসুমে মা মাছ রক্ষায় ভোলার ১৯০ কিলোমিটার এলাকায় সব ধরনের ইলিশ শিকারে ১১ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মৎস্য বিভাগ। চলতি মাসের ১৩ থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত মেঘনার ৯০ কিলোমিটার এবং তেঁতুলিয়ার একশ কিলোমিটার এলাকায় এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভোলা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রীতিষ কুমার মল্লিক এ তথ্য নিশ্চিত করেন। মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ভোলার ইলিশা থেকে চর পিয়াল পর্যন্ত মেঘনা নদীর ৯০ এবং ভেদুরিয়া থেকে পটুয়াখালীর চর রুস্তম পর্যন্ত জলসীমার এলাকাকে ইলিশের অভায়াশ্রম হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। নির্ধারিত এ সীমানায় মা মাছ সাগর থেকে ডিম ছাড়ার উদ্দেশে নদীতে আসে। তাই ওই সব সীমানা ছাড়াও জেলার উপকূলের সব নদ-নদীতে সরকারি নিশেধাজ্ঞা জারি করা হয়। নির্ধারিত এ সময়ে ইলিশ ধরা, বিক্রি, মজুদ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রীতিষ কুমার মল্লিক জানান, ইলিশ না ধরার জন্যে বিভিন্ন মৎস্যঘাটে মাইকিং ও লিপলেট বিতরণ করা হবে। সরকারি নিষেধাজ্ঞার সময়ে পুলিশ, কোস্টগার্ড, মৎস্য বিভাগ, ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করবেন। আইন অমান্য করে কেউ মাছ শিকার করলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে ১১ দিন মাছ শিকার বন্ধ থাকলে বেকার হয়ে পড়বে জেলার দু লক্ষাধিক জেলে। ভরা মরসুমের শেষ পর্যায়ে যে মুহূর্তে জেলেদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়ছে সে মুহূর্তে জেলে পুনর্বাসন না করে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করায় সাধারণ জেলেদের মধ্যে ক্ষোভ আর অসন্তোষ বিরাজ করছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *