পিটিয়ে ও কুপিয়ে এক যুবককে জখম করেছে প্রতিপক্ষ একদল যুবক

চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরে হর্ণবাজিয়ে মোটরসাইকেল অতিক্রম করা নিয়ে দুপক্ষের বিরোধ

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের কেদারগঞ্জ মালোপাড়ার বিদ্যুত মিস্ত্রি রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে কয়েক যুবক। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় পান্না সিনেমা হলের অদূরবর্তী রাজনের চায়ের দোকানের সামনে তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করা হয়।
রাকিবুল ইসলাম রাকিব মালোপাড়ার মোমিনুল ইসলামের ছেলে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাতের রগ কেটে ও শরীরে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। গতরাতেই তাকে ঢাকায় নেয়া হয়েছে। রাকিবুল ইসলামের পিতা দীর্ঘদিন ধরে প্যরালাইজড। রাকিবই পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম পুরুষ। অথচ গতকাল বুধবার সে তার বন্ধুর মোটরসাইকেল চেয়ে নিয়ে একটু চালাতে গিয়ে পুরাতন জীবননগর বাসস্ট্যান্ডপাড়ার কয়েক যুবকের সাথে বিরোধে জড়িয়ে হামলার শিকার হয়ে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে হলো তাকেসহ তার পরিবারের।
ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে রাকিবের শয্যাপাশে থাকা লোকজন বলেছেন, রাকিব তার এক বন্ধুর মোটরসাইকেল নিয়ে অন্য বন্ধুকে সাথে নিয়ে বড়বাজারে যায়। ফেরার সময় কেদারগঞ্জ ১নং পানির ট্যাঙ্কের নিকট পৌঁছে পানির ট্যাঙ্কপাড়ার রিমনের মোটরসাইকের অতিক্রমের সময় হর্ণ দেয়ায় বাঁধে বিরোধ। এরই জের ধরে সন্ধ্যায় আইনুদ্দিনের ছেলে রিমন, ইম্প্যাক্টপাড়ার শিমুলসহ কয়েক যুবক পান্না সিনেমা হলের অদূরবর্তী চায়ের দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে থাকাবস্থায় হামলা চালিয়ে রাকিবকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *