পাওয়া গেলো না পিনাক-৬ : উদ্ধার অভিযান পরিত্যক্ত

 

১৭টি ছোট-বড় জাহাজএকহাজার উদ্ধারকর্মী ও পুলিশ অত্যাধুনিক সরঞ্জামব্যর্থ

 

স্টাফ রিপোর্টার: মুন্সীগঞ্জেরলৌহজং চ্যানেলে পদ্মায় ডুবে যাওয়া লঞ্চের উদ্ধার অভিযান ৮ দিনের মাথায়সোমবার পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকঢোল পিটিয়ে ১৭টি ছোট-বড় জাহাজ, একহাজার উদ্ধারকর্মী ও পুলিশ অত্যাধুনিক সরঞ্জাম ব্যবহার করেও লঞ্চটি উদ্ধারেব্যর্থ হয়েছে। এর আগে রোববার উদ্ধার অভিযান সীমিত করা হয়েছিলো। দেশেরইতিহাসে এই প্রথম ডুবে যাওয়া কোনো জাহাজ উদ্ধারে সাববটম প্রোফাইল ও সাইডস্ক্যান সোনার প্রযুক্তি ব্যবহার করেও সফলতা আসেনি। এজন্য নদীর অসমতল গভীরতলদেশ, তীব্র স্রোত ও প্রতিকূল আবহাওয়াকে দায়ী করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পরিত্যক্তঘোষণার পর বিআইডব্লিউটিএ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, নৌবাহিনী, ফায়ারসার্ভিস, কোস্টগার্ড, রেড ক্রিসেন্টসহ সরকারি-বেসরকারি সব কটি সংস্থা মাওয়াত্যাগ করেছে। এখন মাওয়াঘাট সুনসান। শুধু পুলিশের কন্ট্রোল রুমটি খোলারয়েছে। সবাই চলে যাওয়ার পর স্থানীয় কয়েকজন যুবক নিজ উদ্যোগে ‘চেইন কপ্পাপদ্ধতি’তে লঞ্চটি উদ্ধারের চেষ্টা করছেন। এখন পর্যন্ত তারাও সফলতার মুখদেখতে পারেনি। যদিও সোমবার তারা দাবি করেছেন প্রাথমিকভাবে একটি বস্তুচিহ্নিত করার।

মাওয়া-কাওড়াকান্দি রুটে চলাচলকারী ৮৫ যাত্রী ধারণক্ষমতারফিটনেসবিহীন পিনাক-৬ লঞ্চটি ৪ আগস্ট মাওয়াঘাটের কাছে ডুবে যায়। মাত্র ১৯দশমিক ৫০ মিটার দৈর্ঘ্যরে ছোট এই লঞ্চটি খুঁজে না পাওয়া ও অভিযানপরিত্যক্তের ঘোষণার মধ্য দিয়ে দুর্যোগকবলিত নদীমাতৃক বাংলাদেশেরউদ্ধারকারী দলের চরম ব্যর্থতা ও অসক্ষমতার চিত্র ফুটে উঠেছে। ক্ষোভ ও হতাশাবেড়েছে সাধারণ মানুষ ও নিখোঁজদের আত্মীয় স্বজনের মধ্যেও। উদ্ধার অভিযানচলাকালে মাওয়া ও কাওড়াকান্দিতে কয়েক দফায় লোকজন বিক্ষোভ করেনৌপরিবহনমন্ত্রী ও বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবি করেছেন।উদ্ধার অভিযান পরিত্যক্ত ঘোষণার পরও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেনতারা।
মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল সোমবারআনুষ্ঠানিকভাবে লঞ্চটির উদ্ধার অভিযান পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, লাশ উদ্ধারে মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশসহ পদ্মা মেঘনার ভাটির জেলাগুলোতে সার্চকমিটির কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বিআইডব্লিউটিএর ৮ জাহাজ: লঞ্চডুবিরখবরের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ঘটনাস্থলে যায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সেরলোকজন। স্পিডবোট রেসকিউ-২ ও ট্রলার দিয়ে ডুবুরি নামিয়ে দড়ি টেনে লাশউদ্ধারের চেষ্টা করে। কিন্তু সফলতা মেলেনি। ওইদিন বিকেলেই ঘটনাস্থলে যায়বিআইডব্লিউটিএর অনুসন্ধানকারী জাহাজ তিস্তা ও তুরাগ। তারা জাহাজটিঅনুসন্ধানের চেষ্টা করে। রাত ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিআইডব্লিউটিএরঅনুসন্ধান হাজাজ সন্ধানী। তলব করা হয় উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তমকে। রাত একটানাগাদ ঘটনাস্থলে যায় রুস্তম। একদিন পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিআইডব্লিউটিএরনতুন কেনা উদ্ধার জাহাজ নির্ভীক। রুস্তম, নির্ভীক, সন্ধানী, তিস্তা ও তুরাগথেকে সুফল না আসায় তলব করা হয় টাগবোট ৮-৩৯৭, আইটি-৩৯৪ ও ব-দ্বীপকে।বিআইডব্লিউটির আটটি জাহাজই ব্যর্থতার প্রমাণ দেয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.