পাঁচ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সৌর বিদ্যুত স্থাপন করা হবে

স্টাফ রিপোর্টার: সারাদেশে বিদ্যুতবিহীন পাঁচ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সৌর বিদ্যুত স্থাপনের পরিকল্পনা করছে সরকার। এ লক্ষ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য ৪০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুত উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অবস্থিত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে সম্ভাব্য সুবিধাভোগকারী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিদ্যুত সংযোগ রয়েছে সেগুলো এর আওতামুক্ত থাকবে। ডিজিটাল বৈষম্য দূর করতে সরকার এ নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, বিদ্যুত বিভাগে ফেব্রুয়ারিতে সোলার প্যানেল স্থাপনের অগ্রগতি পর্যালোচনাসংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় বিষয়টিকে জনগুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে মতামত দেয়া হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সরকারের ৫০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুত উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নে (২০১২-১৬) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন তার দফতর বা সংস্থাকে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে অনুরোধ করা হয়েছে। সেইসঙ্গে এ পর্যন্ত গৃহীত প্রকল্প বা কর্মসূচির আওতায় সোলার প্যানেল স্থাপনসংক্রান্ত তথ্যাদি প্রেরণেরও অনুরোধ জানানো হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক ৫ মার্চ শিক্ষা সচিব ড. মোহাম্মদ সাদিক বরাবর এ সংক্রান্ত অগ্রগতি প্রতিবেদন পাঠিয়েছেন।

মাউশির দেয়া তথ্যানুযায়ী, সারাদেশে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা রয়েছে ৩১ হাজার ৭৬৭টি। এর মধ্যে মাধ্যমিক পর্যায়ে বেসরকারি স্কুল রয়েছে ১৮ হাজার ৮৯০ ও মাদরাসা রয়েছে ৯ হাজার ৬০০টি। অন্যদিকে সরকারি মাধ্যমিক স্কুলের সংখ্যা ৩২৭ ও মাদরাসা রয়েছে চারটি। এছাড়া বেসরকারি কলেজ রয়েছে ৩ হাজার ২৭৭ এবং সরকারি কলেজের সংখ্যা ২৭১টি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাউশির সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বিদ্যুতবিহীন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সৌর বিদ্যুত সরবরাহসহ আইসিটি শিক্ষার উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। এ প্রকল্পের আওতায় বিদ্যুত সংযোগ রয়েছে এমন ২০ হাজার ৫০০ স্কুল, কলেজ ও মাদরাসায় এরই মধ্যে ইন্টারনেট, মডেম, মাল্টিমিডিয়া, ল্যাপটপ পাঠানো হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুইজন শিক্ষককে এ সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে উল্লেখিত সুযোগ-সুবিধা দেয়ার জন্য ৩ হাজার ৩০০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এরই মধ্যে বিদ্যুত সংযোগ দেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া বর্তমান সরকারের স্বপ্ন। এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে সরকার সবকিছুই করবে। আইসিটি শিক্ষার উন্নয়নে এরই মধ্যে ২০ হাজার ৫০০ স্কুল, কলেজ ও মাদরাসায় ইন্টারনেট, মডেম, মাল্টিমিডিয়া, ল্যাপটপ পাঠানো হয়েছে। যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা তথ্য ও প্রযুক্তিসেবা পাচ্ছে না তাদের সবাইকে এ সেবার আওতায় নিয়ে আসা হবে। তাই সৌর বিদ্যুত স্থাপনের পরিকল্পনা করছে সরকার।

মাউশি মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন বলেন, ডিজিটাল বৈষম্য দূর করতে সরকার এ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এরই মধ্যে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুত সংযোগ দেয়া হয়েছে। আরও বেশকিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদ্যুত সংযোগের জন্য উপযোগী নয়, সেগুলোতে সৌর বিদ্যুত স্থাপনের পরিকল্পনা করছে সরকার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *