পশুসম্পদ চিকিৎসক ও দুটি ফার্মেসি মালিকের জরিমানা

চুয়াডাঙ্গার ডিঙ্গেদহ ও সরোজগঞ্জ বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত
ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি/সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা সদরের ডিঙ্গেদহ বাজারের পশুসম্পদ চিকিৎসক এমএ হান্নানকে সরকারি অনুমোদনবিহীন ওষুধ, পশুখাদ্য ও ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অর্থদণ্ডাদেশ দেন। অপরদিকে সরোজগঞ্জে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত দুটি ওষুধের দোকানিকে জরিমানা করেছেন।
জনা গেছে, গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় নেজারত ডেপুটি কালেক্টরেট (এনডিসি) মো. তরিকুল ইসলাম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু তাহের মোহাম্মদ সামসুজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ডিঙ্গেদহ বাজারে পশুসম্পদ চিকিৎসক আ. হান্নানের ওষুধের দোকানে অভিযান চালান। দোকানে সরকারি অনুমোদনবিহীন ওষুধ, পশুখাদ্য ও ড্রাগ লাইসেন্স না থাকার অপরাধে ড্রাগ অ্যাক্ট ১৯৪০’র ১৮ ক ও গ ধারা মোতাবেক ৬ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ প্রদান করেন। পল্লিচিকিৎসক আ. হানান জরিমানার টাকা সাথে সাথেই পরিশোধ করেন। এ সময় সাথে ছিলেন ড্রাগসুপার এসএম সুলতানুল আরেফিন, বেঞ্চ সহকারী নাজমুল হক, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অফিস সহকারী তাইজেল আলী।
অপরদিকে গতকাল সোমবার বিকেল ৫টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদরের সরোজগঞ্জ বাজারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তরিকুল ইসলাম ও আবু তাহের মো. সামসুজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। সরকারি অনুমতিবিহীন ও ডিআর নম্বর ওষুধের লেবেলে না থাকায় ১৯৪০ সালের ১৮/ক ধারায় একতা ফার্মেসির মালিক আব্দুল কুদ্দুসকে ৪ হাজার টাকা, সততা ফার্মেসির মালিক তৈয়ব আলীকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। চুয়াডাঙ্গা ড্রাগসুপার এসএম সুলতানুল আরেফিন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *