নিজেরা সচেতন হলেই অগ্নিকাণ্ডের হাত থেকে জানমাল রক্ষা করা সম্ভব

অগ্নিকাণ্ড নিরোধে প্রস্তুত বাংলাদেশের প্রথম ইউনিয়ন ঘোষণা অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহম্মেদ

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা সদরের কুতুবপুর ইউনিয়নকে অগ্নিকা- নিরোধে প্রস্তুত বাংলাদেশ প্রথম ইউনিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস সদস্যদের দ্বারা প্রশিক্ষণ মহড়ার আয়োজন করা হয়। গতকাল দুপুরের কুতুবপুর ইউনিয়নের আয়োজনে বিভিন্ন গ্রামে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র বিতরণ করা হয়। অগ্নি নিরোধে প্রস্তুত বাংলাদেশ প্রথম ইউনিয়ন ঘোষণা করেন ও প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহম্মেদ। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহম্মেদ বলেন, নিজেরা সচেতন হলেই অগ্নিকা-ের হাত থেকে জান-মাল রক্ষা করা সম্ভব।
তিনি আরও বলেন, আমরা বিড়ি সিগারেটের আগুন যত্রতত্রভাবে ফেলে দিই। অথচ সেই আগুন থেকে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। তাই এ বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। বাড়ি, অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুতের তার বছরে অন্তত একবার হলেও পরীক্ষা করে নেয়া ভালো যাতে শর্ট সার্কিটের কারণে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির হাত রক্ষা পাওয়া যাবে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও কুতুবপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহম্মদ হাসানুজ্জামান মানিকের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওয়াশীমুল বারী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফকরুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) খালিদ হোসেন, সরোজগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা, সরোজগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আকবার আলী, পরিচালনা কমিটির সদস্য জিল্লুর রহমান, সরোজগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন, দত্তাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহাবুবুর রহমান, হাসনহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান, সরোজগঞ্জ ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই শেখ মাহাবুবুর রহমান, কুতুবপুর ইউপি সচিব মোশারফ হোসেনসহ সকল ইউপি সদস্যবৃন্দ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *