নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় বিভাগীয় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়া হবে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে র‌্যাবপ্রধান প্রতিশ্রুতি

স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জে কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ চাঞ্জল্যকর ৭ খুনের বিষয়ে খুব শিগগিরইজনগণের সামনে সবকিছু পরিষ্কার করা হবে বলে সংসদীয় স্থায়ী কমিটিকেজানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক মোখলেছুর রহমান। গতকাল মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে র‌্যাব প্রধান প্রতিশ্রুতিদিয়ে বলেছেন, এ রোমহর্ষক ঘটনায় র্যাবের কেউ জড়িত থাকলে তাকেও রক্ষারচেষ্টা করবো না। ঘটনার সাথে যে বা যারাই জড়িত থাকুক না কেনো, তাদের বিরুদ্ধেবিভাগীয় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়া হবে।সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকশেষে সংসদীয় কমিটির সভাপতি টিপু মুনশী র‌্যাবের ডিজির এ প্রতিশ্রুতির বিষয়েজানিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, সংশ্লিষ্টদের আমরা বলেছি- যে ঘটনা ঘটেছে, তাতেকমিটি উদ্বিগ্ন। জনপ্রতিনিধিরা এ ঘটনায় বিব্রত হয়েছে। কারণ, জনগণকে আমাদেরজবাব দিতে হয়। বৈঠকে উপস্থিত পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হাসান মাহমুদখন্দকারও কথা দিয়েছেন- ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করা হবে, জড়িত কাউকেইছাড় দেয়া হবে না।নারায়ণগঞ্জের বহুল আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডের‌্যাব-১১-এর কর্মকর্তার সম্পৃক্ততার অভিযোগ এনেছেন খুনের শিকার নজরুলেরশ্বশুর শহীদুল ইসলাম। তার অভিযোগ তদন্তে র‌্যাবের পক্ষ থেকে গতপরশু একটিকমিটি গঠনের পর গতকাল মঙ্গলবার সংসদীয় কমিটিকে এ প্রতিশ্রুতি দিলেনর‌্যাবপ্রধান মোখলেছুর রহমান। বৈঠকে কমিটির সদস্য স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীআসাদুজ্জামান খান কামালও ছিলেন।র‌্যাব-১১’র সাবেক অধিনায়ক তারেকসাঈদ একজন মন্ত্রীর জামাতা, এ বিষয়ে টিপু মুনশী সাংবাদিকদের বলেন, আমরাবিষয়টি গণমাধ্যম থেকে জেনেছি। আমরা সংশ্লিষ্টদের বলেছি- কোনো একজনের জন্যসরকার বা দল দায়ী থাকবে না। দায়ী যে-ই হোক না কেনো, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থানিতে হবে, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। এ ধরনের অপরাধ সাধারণ নাগরিককরলে যে শাস্তি হতো, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কেউ জড়িত থাকলে তার শাস্তি এরচেয়েও বেশি হওয়া উচিত।টিপু মুনশী বলেন, অপহরণ ও খুনের ঘটনা তদন্তের অগ্রগতি জানতে সংসদীয় কমিটি ১৫ দিনের মধ্যে আবার বৈঠকে বসবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *