নাটোর থেকে অপহরণের ৫ দিনের মাথায় চুয়াডাঙ্গায় অপহৃত

 

স্টাফ রিপোর্টার: অপহরণ ও বন্দির ৫ দিনের মাথায় চুয়াডাঙ্গা থেকে বাড়ি ফিরলেন বগুড়া শান্তাহারারের হেলাল সরদার। গতপরশু রাতে অজ্ঞান অবস্থায় চুয়াডাঙ্গা স্টেশনে নামেন। স্থানীয়রা তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর স্বাভাবিক জ্ঞান ফিরলে তিনি তার বাড়িতে খবর দেন। বাড়ির লোকজন এসে গতকালই তাকে বগুড়ায় ফিরিয়ে নেন।

হেলাল সরদার বলেছেন, আমাকে অপহরণ করে একটি মাঠে বন্দি করে রাখা হয়েছিলো। কয়েকদিন পর পান খেতে বাধ্য করে ট্রেনে তুলে দেয়। চোখ খুলে দেখি এখন আমি চুয়াডাঙ্গায়। বাড়ি বগুড়া সান্তাহারের সাপাহার গ্রামে। পিতার নাম মৃত হাসিম সরদার। প্রাক্তন সেনা সদস্য। পৌর কাউন্সিলর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। আড়াই লাখ টাকা নিয়ে তরমুজ কেনার জন্য নাটোরে গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই তাকে তুলে নেয়া হয় মাইক্রোবাসে। টাকা কেড়ে নেয়া হয়। রাখা হয় মাঠের শ্যালোইঞ্জিনের ঘরে। কয়েকদিন পর গতপরশু ছেড়ে দেয়া হবে বলে জানিয়ে পান খেতে বাধ্য করে অপহরকচক্র। পান খেতে বাধ্য করে তুলে দেয় ট্রেনে।

Leave a comment

Your email address will not be published.