নাগদাহ-সরিষাডাঙ্গা ওয়াপদার জমি কেটে বালি বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

0
31

বালিদস্যুদের দম্ভোক্তি- খুন করে কিছু হয় না আর বালি বিক্রি করলে কী হবে

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার নাগদাহ-সরিষাডাঙ্গা গ্রামের ডাঙার মাঠ জিকে ক্যানালের পাশের ওয়াপদার জমি কেটে বালি বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে এলাকার কতিপয় বালিদস্যুর বিরুদ্ধে। নাগদাহ গ্রামের বিশে ও পার্শ্ববর্তী সরিষাডাঙ্গা গ্রামের রতন আলী ওই কাজের প্রধান হোতা বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার নাগদাহ-সরিষাডাঙ্গা এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়া গঙ্গা কপোতাক্ষ সেচ প্রকল্পের বর্ধিত খালের ডাঙার মাঠ নামক স্থানে ওয়াপদার বেশ কিছু পরিমাণ জমি রয়েছে। ওয়াপদার ওই জমির পাশে নাগদাহ গ্রামের মৃত নিয়াত আলীর ছেলে বিশের মাত্র ৩ শতক জমি রয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে ওয়াপদার ওই জমির মাটি কেটে এলাকার কতিপয় ব্যক্তি বিক্রি করে আসছে। ওই জমির মাটি কেটে বিক্রি করার সময় মাত্র ১ ফুট খুঁড়েই তারা বালির সন্ধান পেয়ে যায়। এবার তাদের ব্যবসা জমজমাট হয়ে ওঠে। মাত্র ১ মাসের মধ্যে বালুদস্যুচক্র ওয়াপদার মাটি-বালু বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নাগদাহ গ্রামের মৃত নিয়ামত আলীর ছেলে বিশে ও পার্শ্ববর্তী সরিষাডাঙ্গা গ্রামের মহির উদ্দীনের ছেলে রতন আলি ওই বালুসদস্যুদের প্রধান। তাদের নেতৃত্বে ওয়াপদার জমিতে  অবৈধভাবে মাটি-বালি কেটে বিক্রির মহোৎসব চলছে। এলাকার বেশ কিছু সচেতন মানুষ ওয়াপদার জমির মাটি-বালু কেঁটে অবৈধ্যভাবে বিক্রি করতে নিষেধ করলেও কোনো কাজ হয়নি। উল্টো তাদেরকে হুমকি দিয়ে বলেছে- ‘খুন করে কিছু হয় না আর বালি বিক্রি করলে কি ফাঁসি হবে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here