নাগদাহ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

 

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো:আলমডাঙ্গার মুন্সিগঞ্জ-রোয়াকুলি প্রধান সড়কের পাশে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করায় নাগদাহ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অন্যের কৃষি জমির ক্ষতিসাধন করে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করার অপরাধে এ দণ্ডাদেশ দেয়া হয়। জরিমানার টাকা তাৎক্ষণিক পরিশোধ করায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয় এবং বালি উত্তোলন না করার জন্য সতর্ক করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলমডাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. শাহীনুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন আদালত গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে ওই বালিমহালে অভিযান চালিয়ে বালি মজুদ দেখতে পান। দীর্ঘদিন ধরে ওই বালি উত্তোলন ও বাজারজাত করা হচ্ছিলো। ড্রেজিং করে অবৈধভাবে ভূগর্ভস্থ বালি উত্তোলন করায় বালিমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা অধ্যাদেশের ২০১০ এর ১৫ (১) ধারা অনুযায়ী অপরাধীসাব্যস্ত হওয়ায় আবুল কালাম আজাদকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়।

সূত্র জানায়, ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতির খবর পেয়ে আলমডাঙ্গা নাগদাহ গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে জমির মালিক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ (৫৫) সেখানে হাজির হন। এসময় তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালত নগদ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের আদেশে পুলিশ তাকে আটক করে আলমডাঙ্গায় নেয়। সেখানে জরিমানার টাকা পরিশোধ করেন তিনি। ফলে মুক্ত হন তিনি। অভিযানে সহায়তা করেন আলমডাঙ্গা থানার এসআই জিয়াউল হকসহ সঙ্গীয় ফোর্স।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *