ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনে ইবি ছাত্রদলের গাড়ি ভাঙচুর : ছাত্রলীগের হামলায় দু ছাত্রদলকর্মী আহত

ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের ডাকা পাঁচ দফা দাবিতে ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন গতকাল রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি গাড়িতে আবারো ভাঙচুর চালিয়েছে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এদিকে ছাত্রদলের সবুজ এবং সাইদুর সামে দু কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ে এলে তাদেরকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ব্যাপক মারধর করেন। এছাড়া কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব গাড়ি না আসার কারণে অধিকাংশ বিভাগেই কোনো ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার সকাল ৯টার দিকে ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে ক্যাম্পাসে আসার সময় ঝিনাইদহের গাড়াগঞ্জ নামক স্থানে আসার পর ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি গাড়ি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় ওই দুটি বাসের কয়েকটি জানালার কাঁচ ভেঙে দেয়া হয়। তবে বাসে থাকা আরোহীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। পরে পুলিশ প্রশাসনের সহায়তায় গাড়ি ক্যাম্পাসে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক মামুনুর রহমান বলেন, ধর্মঘটের নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক, যারা এর সাথে জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি ওমর ফারুক বলেন, সবুজ নামে আমাদের এক কর্মী তার বিভাগে গিয়েছিলো, কিন্তু সেখানে থাকা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী তাকে অন্যায়ভাবে মারধর করলে সেখানে উপস্থিত তার কিছু সহপাঠী তাকে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যায়। এছাড়া সাইদুর নামে আমাদের এক কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থানকালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাকে অন্যায়ভাবে মারধর করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।

এদিকে গতকাল শনিবারও বিশ্ববিদ্যালয়ের সব গাড়ি কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ থেকে না আসার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষার্থী আসতে পারেননি। ফলে কয়েকটি বিভাগে কিছু ক্লাস-পরীক্ষা হলেও অধিকাংশ বিভাগেই কোনো ক্লাস-পরীক্ষা হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক সাহেদ আহমেদ ধর্মঘটের বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে। এর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের দাবিগুলোর ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা না নিলে আগামী শনিবার থেকে লাগাতার ধর্মঘট দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের গ্রেফতারকৃত সাধারণ সম্পাদক রাশিদুল ইসলামসহ গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি, ক্যাম্পাসে ছাত্রসংগঠনগুলোর সহাবস্থান নিশ্চিতকরণসহ ৫ দফা দাবিতে গত মঙ্গলবার ধর্মঘটের ডাক দেয় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *