দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রথমপক্ষের মেয়েকে ধর্ষণ করেছে লম্পট আফজাল

ঝিনাইদহ চাকলাপাড়ার ভাড়াবাসায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর আত্মগোপন : মামলার পর গ্রেফতার

 

বাজারগোপালপুর প্রতিনিধি: দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রথমপক্ষের স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে ধর্ষণ করেছে লম্পট আফজাল (৩৮)। এ অভিযোগে গতপরশু মঙ্গলবার ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে। ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলা সদরের কুমড়োবাড়িয়া ইউনিয়নের কনেজপুর দক্ষিণপাড়ার মৃত হেলাল উদ্দীনের ছেলে আফজাল হোসেন ঘরে প্রথম স্ত্রী ও দু সন্তান রেখে একই গ্রামের পশ্চিমপাড়ার এক বিধবার সাথে দ্বিতীয় বিয়ে করে। তিন মাস আগে বিয়ে করে দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে আফজাল ঝিনাইদহের চাকলাপাড়ায় ভাড়ায় বসবাস শুরু করে। দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রথম পক্ষে রয়েছে তিন সন্তান। বড় মেয়ে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী। তাকে ঝিনাইদহের স্কুলে ভর্তি করিয়ে দেয়ার কথা বলে ঝিনাইদহের ভাড়ার বাসায় আনা হয়। গত সোমবার দ্বিতীয় স্ত্রীকে তার মেয়ের জন্য জামাকাপড় কিনতে বাজারে পাঠিয়ে লম্পট আফজাল দ্বিতীয় স্ত্রীর মেয়েকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের পর পালিয়ে যায় আফজাল। দ্বিতীয় স্ত্রী বাড়ি ফিরে মেয়ের অবস্থা দেখে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেন। ঘটনার বর্ণনা শুনে ঝিনাইদহ সদর থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় গত মঙ্গলবার আফজালকে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *