দৌলতপুরে বায়েজিদ ম্যাচে ঝলসানো শ্রমিকের মৃত্যু

 

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গায় বায়েজিদ ম্যাচ ফ্যাক্টরিতে আগুনে ঝলসানো শ্রমিক সুমন আলী (২৮) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত ১০টার দিকে মারা গেছেন। আহত রাজ্জাক আলী (৩০) এখনও বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন। ফলেগত দু বছরে সুমন আলীসহ বায়েজিদ ম্যাচ ফ্যাক্টরিতে আগুনে ঝলসানো ৫ শ্রমিকের মৃত্যু হলেও ফ্যাক্টরি কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় শ্রমিকদের মধ্যে চরম উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে।

জানাগেছে, গত ৫ জুন উপজেলার আল্লারদর্গায় বায়েজিদ ম্যাচ ফ্যাক্টরিতে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। এতে সোনাইকুণ্ডি বেলতলা গ্রামের মাজদার আলীর ছেলে সুমন আলী ও লস্করপাড়া গ্রামের রাজ্জাক আলীর শরীর ঝলসে যায়। প্রথমে তাদের কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সুমন মারা যায়। একই ফ্যাক্টরিতে গত ফেব্রুয়ারিতে আব্দুস সাত্তার (৫৫) নামে এক শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যায়। এর আগে ২০১২ সালের জুলাই মাসে বায়েজিদ ম্যাচ ফ্যাক্টরিতে আগুনে ঝলসে আব্দুর রাজ্জাকসহ ৩ জন শ্রমিক মারা যায়। গত দু বছরে একই ফ্যাক্টরিতে আগুনে ৫ শ্রমিকের মারা যাওয়ার ফলে অন্যান্য শ্রমিকদের মধ্যে চরম উৎকণ্ঠা লক্ষ্য করা গেছে। এ ব্যাপারে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও বায়েজিদ ম্যাচ ফ্যাক্টরি কর্তৃপক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *