দৌলতপুরে পাওনাদারের ওপর হামলা : আহত ৭

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার চড়ুইকুড়ি (চল্লিশপাড়ায়) পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে মো. দাউদ হোসেন (২৮) ও তার স্বজনদের একই এলাকার রফিজউদ্দিন মাস্টারের ছেলে কিরন ও তার লোকজন পিটিয়ে আহত করেছে।

জানা গেছে, গতকালবৃহস্পতিবার দুপুরে মো. দাউদ হোসেন রফিজউদ্দিন মাস্টারের ছেলে কিরনের নিকট পাওনা ৭০ হাজার টাকা চাইতে গেলে কিরন টাকা না দেয়ার জন্য বিভিন্ন ছলচাতুরি শুরু করে।তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে হাতাহাতি শুরু হয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী কিরন ও তার সহযোগীরা দাউদকে (৩৫) বেধড়ক মারপিট করে। এ অবস্থায় দাউদের ভাবী সায়রা খাতুন (৩০) ও বৃদ্ধ পিতা ইউনুস ফরাজী (৭০) ঠেকাতে এলে তাদেরকেও বেধড়ক পিটুনির শিকার হতে হয়। এক পর্যায়ে দাউদের অন্যান্য ভাই আত্তাব (৩৮) মুফাজ্জেল (৩৬),লুৎফর (৩৪) ও ভাতিজা লালন (২০) এগিয়ে এলে তাদেরকেও দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা দিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়,রফিজ উদ্দীনের ছেলে কিরন দীর্ঘদিন যাবত এলাকায় হুন্ডি,স্বর্ণ পাচার,মানুষ পাচার, হেরোইন,ফেনসিডিলের ব্যবসাসহ বিভিন্ন ধরনের সমাজবিরোধী কাজের সাথে জড়িত।এব্যাপারে থানায় মামলা করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *