দৌলতপুরে ছাত্রী কুষ্টিয়ায় ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষকের কারাদণ্ড

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে নিজ স্কুলের ছাত্রীর সাথে যৌন হয়রানির অভিযোগে মকলেচুর রহমান (৪২) নামে এক শিক্ষকের জরিমানাসহ এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার বিকেল ৫টার দিকে এ কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের জয়পুর এলাকার জেএমজি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মকলেচুর রহমান ক্লাস নিতে গিয়ে নবম ও দশম শ্রেণির ছাত্রীদের সাথে যৌন হয়রানি করে। ছাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল সোমবার বিকেলে র‌্যাব-১২ হোসেনাবাদ ক্যাম্পের সদস্যরা ওই স্কুলে অভিযান চালিয়ে শিক্ষক মকলেচুর রহমানকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করেন। উপস্থিত সাক্ষীদের সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীমুল হক পাভেল শিক্ষক মকলেচুর রহমানের ১ বছরের কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করেন। জরিমানার অর্থ অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

জেএমজি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম নান্নু জানান, এর আগেও একই অভিযোগে শিক্ষক মকলেচুর রহমানকে দু মাসের জন্য বিদ্যালয় থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। কারাদণ্ডে দণ্ডিত শিক্ষক মকলেচুর রহমান মাদাপুর মিস্ত্রিপাড়া গ্রামের মৃত ছিপার উদ্দিনের ছেলে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *