দৌলতপুরে এমপির প্রার্থিকে নিয়োগ না দেয়ায় প্রধান শিক্ষক অবরুদ্ধ

 

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্যের প্রার্থিকে নিয়োগ দিতে অস্বীকার করায় প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখে এমপির ক্যাডারবাহিনী। ফলে, তৃতীয় বারের মতোওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা পিছিয়ে গেলো।

জানাগেছে, তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গণিত বিষয়ে দুজন, ইংরেজি বিষয়ে ১ জন ও ব্যবসায়িক শিক্ষা বিষয়ে ১ জন শিক্ষক নিয়োগের জন্য গত ফেব্রুয়ারিতে বিজ্ঞপ্তি দিলে গণিতে ১৬টি, ইংরেজিতে ৩টি, ব্যবসায়িক শিক্ষা বিষয়ে ৫টি আবেদন জমা পড়েএবং বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি সকল বিষয়ে নিয়োগ পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকারীদের নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সেই মোতাবেক গত ৩ মার্চ নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু স্থানীয় স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল হক চৌধুরী তার মনোনীত প্রার্থীদের নিয়োগ দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করায় নিয়োগ পরীক্ষা ভণ্ডুল হয়ে যায়। এরপর গত ১০ মার্চ একই কারণে পরীক্ষা হতে দেয়নি এমপির ক্যাডার বাহিনী। বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেনকে অবগত করলে জেলা প্রশাসক তার কার্যালয়ে শনিবার নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণের নির্দেশ দেন। কিন্তু সকাল থেকে এমপির ক্যাডারবাহিনী প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে তার আল্লারদর্গাস্থ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখে। ফলে তিনি নির্ধারিত সময়ে কাগজপত্র নিয়ে পরীক্ষাস্থলে যেতে পারেননি। বার বার পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ায় আবেদনকারীরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তারাগুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে মোবাইলফোনে অবহিত করেছেন। হুমকির কারণে এর বেশি কিছু বলতে তিনি অস্বীকৃতি জানান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোকতার হোসেন জানান, আমরা নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছলাম এ অবস্থায় প্রধান শিক্ষক জানালের তাকে কারা যেন অবরুদ্ধ করে রেখেছে। বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবগত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, একই কারণে গত ২১ ফেব্রুয়ারি সংসদ সদস্য রেজাউল হক চৌধুরীর ছোটভাই টোকন চৌধুরী প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে তার টর্চার সেলে তুলে নিয়ে গিয়ে শারিরিকভাবে নির্যাতন চালিয়েছিলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *