দৌলতপুরে ইউপি চেয়ারম্যানকে পেটালেন মেম্বাররা : কার্যালয় ভাঙচুর

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে এক ইউপি চেয়ারম্যানকে পিটিয়ে তার কার্যালয় ভাঙচুর করেছেন ওই ইউপির মেম্বাররা। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার ১নং প্রাগপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার সীমান্তবর্তী প্রাগপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি আরিফুল ইসলাম গেদু শনিবার নিজ কার্যালয়ে একটি সালিস বৈঠক করছিলেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই ইউনিয়ন পরিষদের চার মেম্বার তাহাজ উদ্দিন, উজ্জ্বল আহমেদ, আবুল কালাম ও আতিয়ার রহমানসহ একদল যুবক সেখানে অতর্কিত হামলা চালায়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম গেদুকে তারা পেটাতে থাকেন। এ সময় সালিসে উপস্থিত লোকজন প্রাণভয়ে সেখান থেকে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ সময় হামলাকারীরা ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ের চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করে। এদিকে চেয়ারম্যানের ওপর হামলার খবর পেয়ে স্থানীয় বিক্ষুব্ধ লোকজন ইউনিয়ন পরিষদে জড়ো হলে হামলাকারী চার মেম্বারসহ অন্যরা জনরোষের কবলে পড়ার আশঙ্কায় সেখান থেকে সটকে পড়েন।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানিয়েছে, বিভিন্ন প্রকল্পের অনুকুলে সরকারি বরাদ্দের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে চেয়ারম্যানের ওপর হামলা ও তার কার্যালয়ে ভাঙচুর করেন ওই মেম্বাররা।

এদিকে ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম গেদু অভিযোগ করেন, রিপন সরকার নামে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ কর্মী বেশ কিছুদিন ধরে মোবাইলফোনে তার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। কিন্তু তিনি দাবিকৃত চাঁদা দিতে অসম্মতি জানানোর জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তার ওপর এ হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটানো হয়। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম গেদু দৌলতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

দৌলতপুর থানার ওসি এনামুল হক জানান, মামলার আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে হামলা ভাঙচুরের নেপথ্য কারণ বেরিয়ে আসবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *