দৌলতপুরে অস্ত্রের মুখে গৃহবধূ অপহরণ

 

দৌলতপুরপ্রতিনিধি:কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার পল্লি থেকে অস্ত্রের মুখে এক গৃহবধূকে অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ব্যাপারে মামলা না করার জন্য হুমকি দেয়ায় পুলিশকে জানানোর সাহস পায়নি অসহায় পরিবারটি।

জানা গেছে, গত ১৩ মে রাত ১১টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার ধর্মদহ পশ্চিমপাড়া গ্রামের মুদিদোকানি আব্দুর রশিদের স্ত্রী দু সন্তানের জননী আনজিরা খাতুনকে (৩০) একই গ্রামের দবির কসাইয়ের ছেলে বখাটে লম্পট লাবলু ও তার সহযোগীরা তুলে নিয়ে যায়। আনজিরা খাতুনের বাবার বাড়ি আদাবাড়িয়া গ্রামে হানা দিয়ে বাড়ির লোকজনকে বেঁধে রেখে অস্ত্রের মুখে তাকে তুলে নিয়ে যায়।এ ব্যাপারে থানা পুলিশকে জানালে বা মামলা করলে সবাইকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যায়। ফলে অসহায় গরিব পরিবারের কেউ মামলা করতে সাহস পায়নি। ৫ দিনেও আনজিরার কোনো খোঁজ না পেয়ে সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে আনজিরার স্বামী মুদিদোকানি আব্দুর রশিদ। আনজিরার বড় ভাই নাহারুল ইসলাম জানান, বিয়ের পর থেকে লম্পট লাবলু ও সহযোগীরা তার বোনকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো। দৌলতপুর থানার ওসি এনামূল হক জানান, এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *