দামুড়হুদায় ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার

 

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদায় ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি মোমিনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল রোববার সকাল ৬টার দিকে দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই মহাব্বত আলী ও এসআই আফজাল হোসেন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আরামডাঙ্গা গ্রামে অভিযান চালিয়ে আজিম উদ্দিনের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করেন। মোমিন উপজেলার উত্তরচাঁদপুরের উদুর উদ্দিনের ছেলে। তাকে গতকালই আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, দামুড়হুদা উপজেলার হোগলডাঙ্গা গ্রামের গৃহবধূ ৩ সন্তানের জননী গত ৯ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে স্বামীর বাড়ি হোগলডাঙ্গা থেকে করিমনযোগে বাপের বাড়ি একই উপজেলার উত্তরচাঁদপুরে ফিরছিলেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে করিমনটি দামুড়হুদা সদর ইউনিয়নের চিৎলা গ্রামে পৌছুলে লম্পট করিমনচালক মোমিন করিমনটি চিৎলা গুচ্ছগ্রাম অভিমুখে নির্জন রাস্তায় নিয়ে যায় এবং যাত্রী গৃহবধূকে জোরপূর্বক করিমন থেকে নামিয়ে রাস্তার পাশের একটি বেড়ার মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে গৃহবধূকে পুনরায় করিমনযোগে উত্তরচাঁদপুরে নিয়ে যায়। ধর্ষিত গৃহবধূ বাড়ির সামনে পৌঁছানো মাত্রই মোমিনকে চেপে ধরে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করে। এ সময় ধর্ষিতার পরিবারের লোকজন ছুটে আসে এবং মোমিনকে গণধোলাই দেয়। লম্পট মোমিন গণধোলাই খেয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে। মামলা হওয়ার পরপরই মোমিনকে গ্রেফতার করতে হাসপাতালে ছুটে যায় পুলিশ। টের পেয়ে মোমিন হাসপাতাল থেকে পালিয়ে আত্মগোপন করে। এদিকে ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে গ্রামের কয়েকজন মাতবর সালিস বৈঠকের মাধ্যমে আপস-মীমাংসার নামে প্রহসনের পাঁয়তারা করেন। গ্রামে বিচার না পেয়ে শেষমেশ ১১ মে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ দামুড়হুদা মডেল থানায় হাজির হন এবং মোমিনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকে এপর্যন্ত মোমিন পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *