দামুড়হুদার দর্শনা পরাণপুর-লোকনাথপুর সড়কে গাছ ফেলে ছিনতাইকারীদের তাণ্ডব

দর্শনা অফিস: চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার দর্শনা-পরাণপুর সড়কে গাছ ফেলে তাণ্ডব চালিয়েছে সশস্ত্র ছিনতাইকারীরা। দামুড়হুদার লিটনকে কুপিয়ে জখম করে মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়ার সময় স্থানীয়রা প্রতিরোধ গড়ে তোলে। পরে লিটনকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের নিকট নেয়া হয়। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করেছে মোটরসাইকেল। গতরাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দামুড়হুদা দশমিপাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা লিটন মোটরসাইকেলযোগে এমপি আলী আজগার টগরের দর্শনা পুরাতন বাজারস্থ বাসভবনের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। লিটন লোকনাথপুর-পরাণপুর সড়কের মাঝামাঝি পৌঁছুলে রাস্তার ওপর গাছ ফেলে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে ছিনতাইকারীরা। লিটন অভিযেগ করে বলেছেন, ৬/৭ জনের সশস্ত্র ছিনতাইকারী তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ছিনিয়ে নেয় তার ব্যবহৃত লাল রঙের ১শ সিসি হিরো হোন্ডা মোটরসাইকেল। রক্তাক্ত জখম অবস্তায় লিটন দর্শনায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কাছে ফোনে ঘটনার বর্ণনা দিলে দর্শনা আইসি পুলিশ ও ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন ছুটে যায় ঘটনাস্থলে। পুলিশ ও স্থানীয়দের প্রতিরোধের মুখে মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা। ঘটনাস্থল থেকে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করতে পারলেও ঘটনার সাথে জড়িত ছিনতাইকারীচক্রের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে জখম লিটনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

বহুল আলোচিত ওই সড়কে প্রায় ঘটে ছিনতাইয়ের ঘটনা। ফলে সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে ছিনতাই আতঙ্কে সড়কে চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া গত শনিবার রাত ১১টার দিকে একই স্থানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। সেখানে পুলিশ অভিযান চালিয়ে একটি দেশীয় তৈরি শাটারগান, ৬ রাউন্ড রাইফেলের গুলি, ৪টি শক্তিশালী বোমা ও ৩টি ককটেল বোমা উদ্ধার করেছে। একের পর এক অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সংঘটিত হলেও পুলিশ এ পর্যন্ত কাউকেই চিহ্নিত করতে পারেনি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অপরাধীদের চিহ্নিত করে জাল বিস্তার করা হয়েছে। চলছে গ্রেফতার অভিযান।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *