দামুড়হুদার ছুটিপুরে সন্ধ্যারাতে প্রবাসীর বাড়িতে সশস্ত্র ডাকাতদলের হানা

 

গ্রামবাসী ও পুলিশের যৌথ প্রতিরোধে ডাকাতির চেষ্টা ব্যর্থ

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদার ছুটিপুরে সন্ধ্যারাতে প্রবাসীর বাড়িতে ২৫-২৬ জনের অস্ত্রধারী ডাকাতদল হানা দিয়ে ডাকাতির চেষ্টা চালালেও গ্রামবাসী ও ছুটিপুর ক্যাম্প পুলিশের যৌথ প্রতিরোধের মুখে তা ব্যর্থ হয়। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ছুটিপুর ফিল্ডপাড়ার মালয়েশিয়া প্রবাসী এলাহির বাড়িতে ডাকাতি চেষ্টার ঘটনা ঘটে। এ দিকে সন্ধ্যারাতে ডাকাতির চেষ্টার ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও এলাকায় ডাকাতি আতঙ্ক বিরাজ করছে।

গ্রামবাসীদের কাছ থেকে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার নতিপোতা ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চল ছুটিপুরে গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ২৫-২৬ জনের অস্ত্রধারী ডাকাতদল ভেদাগাড়ির বিলের মধ্যদিয়ে গ্রামের ভেতর প্রবেশ করে এবং ছুটিপুর ফিল্ডপাড়ার মালয়েশিয়া প্রবাসী এলাহির বাড়ির দক্ষিণ-পূর্ব সাইডে অবস্থান নেয়। ডাকাতদল তাদের হাতে থাকা টর্চের আলো ছড়িয়ে গোটা এলাকায় এক ভীতিকার পরিস্থিতি সৃষ্টি করে এবং প্রবাসীর ছেলে ভূষিমাল ব্যবসায়ী রিপনকে (২৭) ডাকাডাকি করে।এ সময় গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে হৈজকার দিলে ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিকভাবে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ছুটে আসেন ছুটিপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসআই আবুল হাশেম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সিকদার মশিউর রহমান। গ্রামবাসী ও পুলিশ মিলে গড়ে তোলে যৌথ প্রতিরোধ। এ সময় ডাকাতদল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পিছু হঁটতে শুরু করে। পুলিশ ও গ্রামবাসী ডাকাতদলকে ধাওয়া করলে তারা মেহেরপুরের কাঁঠালপোতার মধ্যদিয়ে সোনাপুরের দিকে পালিয়ে যায়।

ছুটিপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসআই আবুল হাশেম জানান, ডাকাতদল যখন ভেদাগাড়ির বিল হয়ে গ্রামের দিকে আসে ওই সময় মাঠে জমিতে পানি নিতে যাওয়া কয়েকজন চাষি তাদেরকে দেখে বিষয়টি আমাকে জানায়। আমি তাৎক্ষণিকভাবে ওসি সাহেবকে জানায় এবং সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পরে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুললে ডাকাত দল মেহেরপুরের দিকে পালিয়ে যায়।দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সিকদার মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ডাকাতদল গ্রামে ঢোকার চেষ্টা করেছিলো। কিন্ত পুলিশ ও গ্রামবাসীর প্রতিরোধের মুখে তারা পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি এবং কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে পুলিশ এলাকায় জোর তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *